নিজেই নিজেকে চাবুক মারছেন সলমন! ভিড় জমিয়ে দেখছে জনতা

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

    দ্য ওয়াল ব্যুরো: জনতার ভিড়ে দাঁড়িয়ে নিজেই নিজেকে চাবুক মারছেন সলমন খান! তাও আবার হাসি মুখে!

    নাহ্‌ এ দৃশ্য কোনও অ্যাকশন ফিল্মের সিক্যুয়েন্স নয়। সত্যি সত্যিই এমনটা করেছেন ভাইজান। দাবাং-৩-এর শ্যুটিংয়ের জন্য আপাতত রাজস্থানে রয়েছেন সলমন খান। সঙ্গে রয়েছে তাঁর টিম। শ্যুটিংয়ের ফাঁকে ঘুরতে বেরিয়েছিলেন সলমন। সে সময়ে স্থানীয় লোকেদের সঙ্গে দেখাও করেন তিনি। দেখেন দড়ি দিয়ে বানানো চাবুক জাতীয় একটা জিনিস দিয়ে নিজেদের পিঠে আঘাত করছেন একটি লোক। তাঁকে ঘিরে দাঁড়িয়ে রয়েছে বেশ কয়েকজন পুরুষ ও মহিলা।

    সকলেরই পরনের সাজপোশাক একটু অদ্ভুত। গায়ে হলুদ-লাল রঙ দিয়ে নকশা আঁকা। পরনে বেশ চড়া রংয়ের পোশাক। মহিলারা আবার মাথায় নিয়েছেন কাঠের বাক্স জাতীয় একটা জিনিস। তার মধ্যে আবার বসানো রয়েছে কিছু। সব দেখে অনুমান, হয়তো এই মানুষরা রাজস্থানের কোনও উপজাতির অংশ। আর দড়ি দিয়ে বানানো চাবুক পিঠে মারা তাঁদের কোনও রিচুয়ালস। চারপাশ দেখে আন্দাজ হয়তো ওই সম্প্রদায়ের কোনও বিশেষ অনুষ্ঠান চলছিল। সেখানেই হাজির হন ভাইজান। তাঁকে অভ্যর্থনা জানাতেই নিজেদের রীতিনীতির একটা অংশ পারফর্ম করে দেখান ওই সম্প্রদায়ের এক পুরুষ।

    View this post on Instagram

    Thr is pleasure in feeling n sharing thr pain ahhhhhhhhhhhh Baccha party don't try this on your self or on any 1 else

    A post shared by Salman Khan (@beingsalmankhan) on

    প্রথমে মন দিয়ে সবকিছু দেখছিলেন সলমন। হঠাৎই হাতে তুলে নিলেন ওই দড়ির চাবুক। খানিক এ দিক-ওদিক তাকিয়ে নিজের পিঠেই মারতে শুরু করলেন। সুঠাম চেহারার সলমনের স্টান্ট দেখতে ততক্ষণে ভিড় জমিয়েছেন কচিকাঁচারাও। গোটা ব্যাপারটায় দারুণ মজা পেয়েছিলেন সলমন নিজেও। নিজের ইনস্টাগ্রামে শেয়ার করেছেন ভিডিয়ো। তবে বাচ্চাদের এসব স্টান্ট প্র্যাকটিস করতে একেবারেই বারণ করেছেন সল্লু মিঞা। লিখেছেন, বড়রাও যেন এসব স্টান্ট প্র্যাকটিস করতে না যান।

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

You might also like

Comments are closed, but trackbacks and pingbacks are open.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More