সোমবার, সেপ্টেম্বর ১৬

স্মৃতিশক্তি হারিয়েছিলাম, জীবনের ছ’মাস কী হয়েছে কিছুই মনে নেই: দিশা পাটানি

দ্য ওয়াল ব্যুরো: শ্যুটিং না থাকলে জিমন্যাস্টিক্স আর মার্শাল আর্ট নিয়েই ব্যস্ত থাকেন দিশা পাটানি। বি-টাউনের ফিটনেস ফ্রিক অভিনেত্রীদের মধ্যে প্রথম সারিতেই রয়েছে তিনি। তবে এই দিশা নাকি ফিটনেস চর্চার সময়েই পেয়েছিলেন মারাত্মক চোট। কংক্রিটের পিলারে ধাক্কা লেগে মাথায় গুরুতর চোট পান দিশা। তারপর ছ’মাসের জন্য হারিয়েছিলেন স্মৃতিশক্তি।

সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে নিজের জীবনের এমন দুর্বিসহ মুহূর্তের কথা সকলের সঙ্গে শেয়ার করেছেন। দিশার কথায়, “আমার জীবন থেকে ছ’টা মাস হারিয়ে গিয়েছিল। কী ঘটেছে কিছুই মনে নেই।” তবে জীবনের ছ’মাস হারিয়ে ফেললেও দমে যাননি অভিনেত্রী। নিয়মিত জিমন্যাস্টিক্স ও মার্শাল আর্টসের অনুশীলন চালিয়ে গিয়েছেন তিনি। তার ফলেই দিনদিন মনোবল বেড়েছে দিশার। অভিনেত্রীর কথায়, “তিন বছর আগে জিমন্যাস্টিক্স শুরু করেছিলাম। এইসব স্টান্ট প্র্যাকটিসের জন্য অনেক সাহসী হতে হয়। অনেক বাধা পেরিয়ে, অনেক পরিশ্রম করে আমি এই জায়গায় পৌঁছেছি।”

দিশা আরও জানিয়েছেন, জিমন্যাস্টিক্স-এ পারদর্শী হতে গেলে দীর্ঘ অধ্যাবসায়ের প্রয়োজন। নিয়মিত প্র্যাকটিসের মাধ্যমেই নিজেকে পারদর্শী করে তুলেছেন দিশা। তাঁর কথায়, “আঘাত না লাগলে লক্ষ্যে পৌঁছনো যায় না। এত আঘাত সয়েছি বলেই আজ আমি পরিণত।” তবে ফিটনেস স্টান্টের সময় চোট পাওয়া দিশার জীবনে এই প্রথম নয়। এর আগে ‘ভরত’ ছবির শ্যুটিংয়ের সময়েও হাঁটুতে চোট পেয়েছিলেন দিশা পাটানি।

View this post on Instagram

Holi got me like🤪

A post shared by disha patani (paatni) (@dishapatani) on

তবে হাজার চোট-আঘাতও দমাতে পারেনি দিশাকে। বরং নেট দুনিয়ায় নিত্যদিন ভাইরাল হচ্ছে দিশা পাটানির ফিটনেস স্টান্টের নানান ভিডিয়ো। আর অভিনেত্রীর স্টান্ট দেখে হতবাক হচ্ছে তাঁর ভক্তরা।

Comments are closed.