‘সড়ক-২’ বয়কটের দাবি, দেদার ট্রোলড আলিয়া-মহেশ, বিদ্যুৎ-কুনালের সমর্থনে সরব বিটাউনের অনেকেই

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

দ্য ওয়াল ব্যুরো: লকডাউনের জেরে বন্ধ রয়েছে সিনেমা হল। অতএব ছবি রিলিজের জন্য অনলাইন প্ল্যাটফর্মকেই বেছে নিয়েছেন কয়েকজন নির্মাতা। সেই অনুযায়ী, ডিজনি হটস্টারে রিলিজ হতে ছলেছে সাতটি সিনেমা। কিন্তু সেই সিনেমার প্রোমোশন নিয়ে ইতিমধ্যেই শুরু হয়ে গিয়েছে জল্পনা।

যে সাতটা ছবি ওটিটি প্ল্যাটফর্মে রিলিজ হবে তার মধ্যে রয়েছে বিদ্যুৎ জামাল, কুনাল খেমু, আলিয়া ভাট, বরুণ ধাওয়ান, অজয় দেবগণ, অক্ষয় কুমার এবং সুশান্তের সিং রাজপুতের শেষ ছবি। গতকাল ছিল ছবির প্রোমোশনের জন্য লাইভ প্রিমিয়ার সেশন। সেখানে বিদ্যুৎ জামাল এবং কুনাল ডাকই পাননি। আর সুশান্তের ক্ষেত্রে তো সুযোগটাই নেই। সবাইকে ফাঁকি দিয়ে পছন্দের তারার দেশের সবচেয়ে উজ্জ্বল নক্ষত্র হয়ে গিয়েছেন তিনি।

সোমবার থেকেই এই নিয়ে সমালোচনার ঝড় বইছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। নেটিজেনদের একাংশের কথায়, “ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির কিছু লোকের আচরণের জন্য একটা তরতাজা ছেলে নিমেষে চরম সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলল, সেটা দেখেও কারও কোনও শিক্ষা হল না। উল্টে আরও দু’জন অভিনেতার সঙ্গে ঠিক একই ব্যবহার করা হল।“ কেবল নেট দুনিয়া নয়, ক্ষোভ উগরে দিয়েছেন খোদ বিদ্যুৎ জামাল এবং কুনাল খেমুও। তাঁদের সমর্থনে আওয়াজ উঠিয়েছেন বলিউডের আরও অনেকেই।

গতকাল ট্রেড অ্যানালিস্ট তরণ আদর্শ ওই লাইভ প্রিমিয়ারের একটি পোস্টার টুইট করেছিলেন। সেখানেই দেখা যায় ক্যাপশনে সাতটি ছবির উল্লেখ থাকলেও পোস্টারে সব অভিনেতা নেই। এমনকি দু’জন ওই লাইভে আসার জন্য ডাকও পাননি। এরপরেই বিদ্যুৎ টুইট করে লিখেছিলেন, “নিঃসন্দেহে বড় খবর। সাত সাতটা ছবি রিলিজ হবে। তবে আলোচনা চলছে পাঁচটা নিয়েই। বাকি দুটো সিনেমা নিয়ে কোনও কথা নেই। এখনও অনেক লম্বা রাস্তা যেতে হবে। ঝড় এখনও থামেনি।“ টুইট করেন কুনাল খেমুও। অভিনেতা লিখেছিলেন, “সম্মান এবং ভালবাসা চেয়ে পাওয়া যায় না। অর্জন করতে হয়। কেউ সেটা না দিলে কেউ ছোটও হয়ে যায় না। তবে খেলার মাঠ সকলের জন্য সমান হলে বুঝিয়ে দেওয়া যায় যে বড় লাফ আমরাও দিতে পারি।“

আজ বিদ্যুতের সমর্থনে টুইট করেছেন রণদীপ হুডা এবং জেনেলিয়া ডিসুজা। রণদীপের কথায়, বিদ্যুতের সিনেমা রিলিজ হলেই তিনি দেখবেন। আর জেনেলিয়া বলেছেন, “সব ছবিই ভালবাসা দিয়ে, অনেক পরিশ্রম করে বানানো হয়। বদলে মানুষ সামান্য সম্মানটুকুও চায়। কিন্তু সেটাও পাওয়া যায় না।“

তবে গত ২৪ ঘণ্টায় বিদ্যুৎ-কুনালের টুইট ঘিরে তরজার মাঝখানে সোশ্যাল মিডিয়ায় ব্যাপক ভাবে ট্রোলড হয়েছেন আলিয়া ভাট। বাদ যাননি মুকেশ ভাটও। নেটিজেনদের একটা বড় অংশের সাফ দাবি যে ছবিতে আলিয়া আর মহেশের যোগ রয়েছে, সেই সিনেমা তাঁরা দেখবেন না। বয়কট করবেন। ‘সড়ক-২’ বয়কটের দাবিতে হ্যাশট্যাগের বন্যা বইছে টুইটারে। ইনস্টাগ্রামেও এমনই সব মন্তব্য আসছে যে আগেভাগেই কমেন্ট সেকশনে সিলেকটিভ করে রেখেছেন আলিয়া। তবে টুইটারে নেটিজেনদের রোষের হাত থেকে পার পাননি পরিচালক মহেশ ভাট এবং তাঁর মেয়ে আলিয়া। সেই সঙ্গে তুলোধনা চলছে ডিজনি হটস্টার কর্তৃপক্ষেরও।

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

You might also like

Comments are closed, but trackbacks and pingbacks are open.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More