রবিবার, এপ্রিল ২১

রাষ্ট্রপতিকে লেখা চিঠিতে সই করেও অস্বীকার করছেন কেউ কেউ, দাবি প্রাক্তন সেনাকর্মীর

দ্য ওয়াল ব্যুরো : রাষ্ট্রপতির উদ্দেশে লেখা চিঠিতে প্রাক্তন সেনাকর্মীদের কে সই করেছেন আর কে করেননি। এই নিয়েই দেখা দিয়েছে বিভ্রান্তি। গত বৃহস্পতিবার লোকসভা ভোটে প্রথম দফা ভোটগ্রহণের দিন শোনা যায়, প্রায় দেড়শ জন প্রাক্তন সেনাকর্মী রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দকে চিঠি লিখে অনুরোধ করেছেন, যেভাবে ভোটের প্রচারে সেনাবাহিনীকে টেনে আনা হচ্ছে, তা বন্ধ করা হোক। পরে কয়েকজন প্রাক্তন সেনাকর্তা বলেন, তাঁরা ওই চিঠিতে সই করেননি। কিন্তু তাঁদের স্বাক্ষরকারী হিসাবে দেখানো হয়েছে। রাষ্ট্রপতির কাছে ওই চিঠি পাঠানোর উদ্যোগ নিয়েছিলেন যে প্রাক্তন সেনাকর্মী, তিনি পালটা দাবি করেছেন, কে সই করেছেন আর কে করেননি, সব প্রমাণ আছে তাঁর কাছে।

ওই চিঠি পাঠানোর জন্য উদ্যোগ নিয়েছিলেন সেনাবাহিনীর প্রাক্তন মেজর জেনারেল সুনীল ভোমবাটকারে। তিনি বলেন, কেউ কেউ বলছেন, তাঁরা চিঠিতে সই করেননি। তাঁরা কেন অমন কথা বলছেন জানি না। আমি চিঠিটি মেল করে বেশ কয়েকজন প্রাক্তন সেনাকর্মীর কাছে পাঠিয়েছিলাম। তাঁরা যে সম্মতি দিয়েছেন, তা আমার কাছে রেকর্ড করা আছে। পরে তাঁরা হয়তো বিশেষ কোনও কারণে ওই চিঠি থেকে দূরে থাকতে চাইছেন। আমি তাঁদের ব্যক্তিগত মতামতকে সম্মান করি।

যাঁরা চিঠিতে সই করার কথা অস্বীকার করেছেন, তাঁদের মধ্যে আছেন বায়ুসেনার প্রাক্তন প্রধান নির্মল চন্দ্র সুরি এবং প্রাক্তন জেনারেল এস এফ রডরিগস। সুরি বলেছেন, রাষ্ট্রপতির কাছে পাঠানোর আগে তাঁকে চিঠিটি দেখানো হয়নি। সুনীল ভোমবাটকারে বলেছেন, তাঁকে যে মেল করেছিলাম, তাতেই চিঠিটি অ্যাটাচ করা ছিল। সুরি ইচ্ছা করলেই পড়ে দেখতে পারতেন, চিঠিতে কী লেখা আছে।

এর মধ্যে রাষ্ট্রপতির অফিস থেকে বলা হয়েছে, তারা এমন কোনও চিঠি পায়নি। প্রাক্তন জেনারেল ভোমবাটকারে বলেন, আমি জানি না কেন রাষ্ট্রপতির অফিস থেকে ওই চিঠির প্রাপ্তি স্বীকার করা হচ্ছে না। রাষ্ট্রপতি ভবনের তিনটি মেল আইডিতে ওই চিঠি পাঠিয়েছিলেন মেজর প্রিয়দর্শী চৌধুরি।

বায়ুসেনার প্রাক্তন প্রধান সুরি জানিয়েছেন, তিনি চান সেনাবাহিনী আগের মতোই অরাজনৈতিক থাকুক। গণতান্ত্রিকভাবে নির্বাচিত কোনও সরকারের মাধ্যমে তারা কাজ করুক। তিনি শুধু এইটুকুই বলতে চান।

কিছুদিন আগে ভোটের প্রচারে উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ ভারতীয় সেনাবাহিনীকে ‘মোদীজি কা সেনা’ বলেন। এসম্পর্কে সুরিকে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, আমি বিষয়টি ভালোভাবে জানি না।

পরে তিনি বলেন, সেনা কথাটির অর্থ কী? তার মানে যারা আপনাকে সমর্থন করে। বিজেপি সদস্যরা মোদীকে সমর্থন করে, তাই তারা মোদী কা সেনা।

এরপর সুরি বলেন, মোদী প্রধানমন্ত্রী। আমরা সকলেই তাঁর সেনা। সেনাবাহিনীও ব্যতিক্রম নয়।

Shares

Comments are closed.