রবিবার, জানুয়ারি ১৯
TheWall
TheWall

দিঘার ট্রেনে টিকিটে ছাড়, বড় ঘোষণা রেলের, মাসে মাসে নিয়মবদল

Google+ Pinterest LinkedIn Tumblr +

দ্য ওয়াল ব্যুরো: দিঘাগামী ট্রেনে যাত্রী বাড়াতে টিকিটে ছাড়ের ঘোষণা করল দক্ষিণ-পূর্ব রেল। হাওড়া-দিঘা সুপার ফাস্ট এসি এক্সপ্রেস এবং দিঘা-হাওড়া কান্ডারি এক্সপ্রেসে এই বছরের ডিসেম্বর থেকে মার্চ পর্যন্ত এসি কোচে মূল ভাড়ার উপরে ২০ শতাংশ পর্যন্ত ছাড় মিলবে।

বছরভর ওই দু’টি ট্রেনে যাত্রী ভাল না হওয়াতেই এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে রেল। সম্প্রতি শতাব্দী এক্সপ্রেসের যে সব রুটে যাত্রী কম হয়, সেখানে এসি কোচে ভাড়ায় ছাড় দিয়ে যাত্রী টানার চেষ্টায় সাফল্য মিলেছে। এবার পর্যটন মরসুমে দিঘাগামী ট্রেনে এসি শ্রেণিতে যাত্রী টানতেই ভাড়ায় ছাড় দেওয়া হচ্ছে। রেল জানিয়েছে, সুপার ফাস্ট এসি এক্সপ্রেসের আপ এবং ডাউন দু’টি ট্রেনেই এবং কান্ডারি এক্সপ্রেসের ক্ষেত্রে দিঘা থেকে হাওড়া ফেরার টিকিটে ওই ছাড় মিলবে। এসি সুপার ফাস্ট এক্সপ্রেসে হাওড়া থেকে দিঘাগামী ট্রেনে গোটা ডিসেম্বর মাসেই শুক্র এবং শনিবার ছাড়া সব দিন এগ্‌জিকিউটিভ চেয়ার কারে টিকিটের মূল ভাড়ার উপরে ২০ শতাংশ ছাড় মিলবে। ফিরতি পথে দিঘা থেকে হাওড়া আসার সময় অবশ্য সব দিনই মিলবে ওই ছাড়। তবে ওই ট্রেনে এসি চেয়ার কারে কোনও ছাড় মিলছে না।

জানুয়ারিতে অবশ্য এগ্‌জিকিউটিভ চেয়ার কারে দিঘা যাওয়ার ক্ষেত্রে সপ্তাহের সাত দিনই ছাড় দেওয়া হচ্ছে। ফেরার ট্রেনে রবিবার বাদে অন্য দিন ছাড় দেওয়া হচ্ছে। এসি চেয়ার কারে দিঘা যাওয়ার সময়ে শুক্রবার এবং ফেরার সময়ে রবিবার ছাড়া অন্য দিন মূল ভাড়ার উপরে ১৫ শতাংশ ছাড় দেবে রেল।

ফেব্রুয়ারিতে আবার নতুন নিয়ম। সেই সময়ে পর্যটকদের সংখ্যা অনেকটা কমে যায়। সেই কারণে ওই সময়ে দুটি শ্রেণিতেই হাওড়া থেকে দিঘা যাওয়ার ট্রেনে যথাক্রমে ২০ এবং ১৫ শতাংশ হারে ছাড় মিলবে। দিঘা থেকে ফেরার ট্রেনে অবশ্য রবিবার ছাড়া সপ্তাহের অন্যান্য দিন ছাড় মিলবে। আবার মার্চে এগজিকিউটিভ শ্রেণিতে দিঘা যাওয়ার সময়ে শুক্রবার এবং হাওড়ায় ফেরার ক্ষেত্রে রবিবার বাদে সপ্তাহের অন্য দিন ছাড় মিলবে। তবে এসি শ্রেণিতে ওই মাসে ছাড় থাকছে না।

দিঘা-হাওড়া কান্ডারি এক্সপ্রেসে হাওড়া ফেরার ট্রেনে ডিসেম্বর থেকে ফ্রেব্রুযারি এসি চেয়ার কারে রবিবার ছাড়া সপ্তাহের অন্য দিন টিকিটে মূল ভাড়ায় ১৫ শতাংশ হারে ছাড় মিলবে। মার্চে কোনও ছাড় নয়।

Share.

Comments are closed.