রবিবার, ডিসেম্বর ৮
TheWall
TheWall

‘এবার কী করবেন মমতা? বেশি বিপদে তৃণমূল’, রাজীব ইস্যুতে আক্রমণ দিলীপের

দ্য ওয়াল ব্যুরো: রাজীব কুমারের থেকে রক্ষাকবচ তুলে নিয়েছে আদালত। স্পষ্ট বলে দিয়েছে, সিবিআই চাইলে গ্রেফতারও করতে পারে কলকাতার প্রাক্তন পুলিশ কমিশনারকে। আর তার পরেই তৃণমূল কংগ্রেসকে আক্রমণ করলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। তাঁর কথায়, রাজীব কুমারের রক্ষাকবচ উঠে যাওয়া মানে তৃণমূল কংগ্রেসের বিপদ বাড়ল। এটা রাজীবের থেকেও তৃণমূলের রাজনৈতিক বিপদ বাড়ার কারণ বোঝাতে তিনি মনে করান, এর আগে রাজীবের বাড়িতে সিবিআই অভিযানের কথা। দিলীপ বলেন, “রাজীবকে বাঁচাতে সেবার তাঁর বাড়িতে ছুটে গিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী, ধর্নায় বসে পড়েছিলেন। এবার কী করবেন মমতা?”

উল্লেখ্য, গত ৩ ফেব্রুয়ারি রাজীব কুমারের লাউডন স্ট্রিটের বাড়িতে যায় সিবিআই। সেই সময়ে তিনি কলকাতার পুলিশ কমিশনার ছিলেন। সেদিন পুলিশের বাধার মুখে ঢুকতেই পারেন না গোয়েন্দারা। পুলিশের দাবি ছিল, অনুমতি ছাড়া নগরপালের বাড়িতে ঢোকা যায় না। কমিশনারের বাড়ির সামনে দায়িত্বে থাকা পুলিশ অফিসাররা বাধা দিলে শেক্সপিয়র সরণি থানায় যান সিবিআই অফিসাররা।

এর পরে খোদ মুখ্যমন্ত্রী রাজীব কুমারের বাড়িতে আসেন। সেদিনই ধর্মতলায় ধর্নায় বসেন মমতা। এই ঘটনায় উত্তপ্ত হয়ে ওঠে রাজ্য রাজনীতি। লোকসভা নির্বাচনের আগের সেই কথাই এদিন রাজীব মামলায় রায় ঘোষণার পরে মনে করালেন দিলীপ ঘোষ। তিনি বলেন, “আদালতের রায়ের পরে সিবিআই গ্রেফতার করবে কিনা সেটা তাদের ব্যাপার। কিন্তু যে ভাবে মুখ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূল কংগ্রেস রাজীব কুমরাকে বাঁচাতে মরিয়া হয়ে উঠেছিল সেটা থেকেই পরিষ্কার যে রাজীবের উপর থেকে রক্ষাকবচ উঠে যাওয়াটা তৃণমূল কংগ্রেসের কাছে বেশি চিন্তার।”

এদিন আদালতের রায়ের পরে মুকুল রায় অবশ্য সে ভাবে মুখ খুলতে চাননি। তিনি শুধু বলেন, “আইন আইনের পথে চলবে।”

Comments are closed.