বুধবার, ডিসেম্বর ১১
TheWall
TheWall

মায়াপুরের গোশালায় দিলীপ, ক্ষমা চাইলেন ‘গো’ সমালোচকদের জন্য

দ্য‌ ওয়াল ব্যুরো: গোরুর দুধে সোনা আর সেই সোনা আস স্বর্ণনাড়ি থেকে। এমন দাবি নিয়ে অনেক সমালোচনার মুখে পড়েও অনড় দিলীপ ঘোষ। কখনও পোল্যান্ডের গবেষণাপত্র, কখনও আয়ুর্বেদ শাস্ত্রের ভিডিও পেশ করে নিজের সমর্থনে প্রমাণ রাখার চেষ্টা করছেন। এবার মায়াপুরে গোশালা পরিদর্শনের পরে তাঁর সমালোচকদের জন্য গোমাতার কাছে ক্ষমাভিক্ষা করলেন দিলীপ। ফেসবুকে মায়াপুরে গোশালা পরিদর্শনের ভিডিও পোস্ট করে তিনি লিখেছেন, “হে গোমাতা যারা তোমাদের প্রশংসা সহ্য করতে পারে না , তাদের তোমরা ক্ষমা করে দাও | গোমাতার জয় হোক !”

শ্রী শ্রী মায়াপুর ধাম – ইসকন মন্দিরে গোশালা দর্শন |হে গোমাতা যারা তোমাদের প্রশংসা সহ্য করতে পারে না , তাদের তোমরা ক্ষমা করে দাও |গোমাতার জয় হোক !

Dilip Ghosh এতে পোস্ট করেছেন রবিবার, 10 নভেম্বর, 2019

গরু নিয়ে তাঁর মন্তব্যের সমালোকদের উদ্দেশে আগেই সরব হয়েছেন তিনি। সাংবাদিক সম্মেলনে এই প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘‘ভেবেই বলেছি। এটাই আমার মত। এর বৈজ্ঞানিক ব্যাখ্যা রয়েছে তো। যাঁরা বিজ্ঞান বোঝেন না, গরুও বোঝেন না, তাঁরাই চেঁচামেচি করছেন’’।

উল্লেখ্য, ক’দিন আগে গরুর দুধ প্রসঙ্গে দিলীপ ঘোষ বলেন, ‘‘দেশি গরুর পিঠে কুঁজ রয়েছে। বিদেশি গরুদের পিঠে তা থাকে না। তাদের পিঠ মোষদের মতো মসৃণ হয়। ওই কুঁজে ‘স্বর্ণনাড়ি’ রয়েছে। যখন সূর্যের রশ্মি ওই কুঁজে এসে পড়ে, তখন সোনা তৈরি হয়। এ কারণেই দেশি গরুর দুধ হলদে রঙের হয়, হাল্কা সোনালি হয়। কারণ এতে সোনা রয়েছে। কেউ যদি শুধু দেশি গরুর দুধ খান, তাহলে আর কিছু খাওয়ার দরকার হবে না’’। দিলীপের এই মন্তব্যে তুমুল সমালোচনা চলে বিভিন্ন মহলে। সেই বিতর্ক কিছুটা ফিকে হয়ে গেলেও এদিন ফেসবুক পোস্ট করে তিনি ফের সেই ইস্যুকে বাঁচিয়ে রাখলেন।

Comments are closed.