রবিবার, জানুয়ারি ১৯
TheWall
TheWall

একটা কিডনি নেই, এমন অসুস্থ ছাত্রকে একশো ওঠবোস করালেন শিক্ষক

Google+ Pinterest LinkedIn Tumblr +

দ্য ওয়াল ব্যুরো: লঘু পাপে গুরু দণ্ড। স্কুলে খাতা নিয়ে না আসার জন্য একশোবার ওঠবোস। তাও আবার এমন এক ছাত্রকে যার একটি কিডনি নেই। এমন ন্যক্কারজনক শাস্তি দেওয়ার বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছে পুণের একটি ইংলিশ মিডিয়াম স্কুলের বিরুদ্ধে। মহাবীর ইংলিশ মিডিয়াম স্কুলের অভিযুক্ত শিক্ষকের বিরুদ্ধে ইতিমধ্যেই এফআইআর দায়ের হয়েছে।

জানা গিয়েছে, রুটিনে থাকা সত্ত্বেও ওই ছাত্র স্কুলে হিন্দি বিষয়ের খাতা নিয়ে আসেনি। এই অপরাধেই তাকে একশোবার ওঠবোস করানো হয় শাস্তি হিসেবে। ছাত্রটি রাজি না হওয়ায় স্কুলে নিযুক্ত ‘বাউন্সার’ ডেকে ওঠবোস করানো হয়েছে বলে অভিযোগ। এখানেই শেষ নয়, ওই ছাত্রকে ১৫ মিনিট হাঁটু মুড়ে বসিয়ে রাখা হয়। এর পরেই ওই ছাত্র অসুস্থতা বোধ করে। বাড়ি ফিরে গোটা বিষয়টি অভিভাবকদের জানায় সে। এর পরে অভিভাবকরা স্কুলে অভিযোগ জানান।

ছাত্রটির মা সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন, স্কুল থেকে ফিরেই তাঁর ছেলে পেটে যন্ত্রণার কথা বলে। পরে জিজ্ঞেস করে তিনি জানতে পারেন, হিন্দি বিষয়ের খাতা না নিয়ে যাওয়ার জন্য তাকে প্রথমে ক্লাসরুমের বাইরে দাঁড় করিয়ে রাখা হয়। এর পরে একশোবার ওঠবোস করানো হয়েছে। এর পরেও নিল ডাউন করে রাখা হয় ১৫ মিনিট।

স্কুলের পক্ষে অভিযোগ স্বীকার করেও নেওয়া হয়েছে। তবে স্কুলের প্রিন্সিপ্যাল অলকনন্দা সেনগুপ্ত জানিয়েছেন, একশোবার নয়, ১৫-২০ বার ওঠবোস করানো হয়েছে। স্কুলের নিয়মানুবর্তিতা রক্ষার জন্যই এটুকু শাস্তি দেওয়া প্রয়োজন বলে জানিয়েছেন তিনি। স্কুলে বাউন্সার থাকার বিষয়টিও তিনি মেনে নিয়েছেন। সেটাও নাকি স্কুলের ডিসিপ্লিন রক্ষার জন্য দরকার।

Share.

Comments are closed.