কোভিড চিকিৎসায় প্রয়োজনীয় তরল অক্সিজেনের দর বেঁধে দিল কেন্দ্র

১৯

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

দ্য ওয়াল ব্যুরো : শনিবার সকালে কেন্দ্রীয় সরকার জানিয়েছে, গত ২৪ ঘণ্টায় কোভিডে আক্রান্ত হয়েছেন ৮৫ হাজার জনের বেশি। এই পরিস্থিতিতে কোভিড ও শ্বাসকষ্টের চিকিৎসায় অতি প্রয়োজনীয় তরল অক্সিজেনের দর বেঁধে দিল কেন্দ্র। অভিযোগ উঠেছিল, কোনও কোনও অসাধু ব্যবসায়ী তরল অক্সিজেন মজুত করছেন। ফলে বাজারে সংকট দেখা দিয়েছে। সেজন্যই তরল অক্সিজেনের দাম বেঁধে দেওয়া হয়েছে।

এক সরকারি বিবৃতিতে বলা হয়েছে, “এতদিন লিকুইড মেডিকেল অক্সিজেনের কোনও দাম বেঁধে দেওয়া হয়নি। ফলে তার ইচ্ছামতো দাম বাড়ানো হয়েছে। মানুষ যাতে ন্যায্য দামে অক্সিজেন পান, সেজন্য সরকার প্রতি ঘন মিটার অক্সিজেনের দাম বেঁধে দিচ্ছে ১৫ টাকা ২২ পয়সা।” ভারতে এখন দৈনিক অক্সিজেনের চাহিদা বৃদ্ধি পেয়েছে চারগুণ। প্রতিদিন ২৮০০ টন অক্সিজেন প্রয়োজন হচ্ছে।

শনিবার ২৬ সেপ্টেম্বর সকাল ৮টা পর্যন্ত ভারতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৫৯,০৩,৯৩২। এ যাবৎ কোভিড সংক্রমণে দেশে মৃত্যু হয়েছে মোট ৯৩,৩৭৯ জনের। সংক্রমণ সারিয়ে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৪৮,৪৯,৫৮৪ জন। ভারতে এখন অ্যাকটিভ রোগীর সংখ্যা ৯,৬০,৯৬৯।

গত ২৪ ঘণ্টায় ভারতে কোভিড সংক্রমণে মৃত্যু হয়েছে ১০৮৯ জনের। সুস্থ হয়ে হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেয়েছেন ৯৩,৪২০ জন। ভারতে এখন সুস্থতার হার ৮২.১৪ শতাংশ। আর মৃত্যুহার ১.৫৮ শতাংশ। গত ২৪ ঘণ্টায় ১৩,৪১,৫৩৫ কোভিড টেস্ট করানো হয়েছে বলে জানিয়েছে স্বাস্থ্যমন্ত্রক।

বিশ্বের কোভিড পরিসংখ্যানে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে ভারত। এর আগে রয়েছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রকের বুলেটিন অনুসারে মহারাষ্ট্র, অন্ধ্রপ্রদেশ, তামিলনাড়ু, কর্নাটক এবং উত্তরপ্রদেশ—–এই পাঁচ রাজ্যে করোনার প্রভাব সবচেয়ে বেশি। গত ২৪ ঘণ্টায় এই ৫টি রাজ্যেই আক্রান্তের সংখ্যা সর্বাধিক। এই ৫ রাজ্য মিলিয়ে আক্রান্তের সংখ্যা ৪৩,৪৫৭, যা নতুন করে সংক্রামিতের সংখ্যার ৫১ শতাংশ।

অন্যদিকে মহারাষ্ট্র, অন্ধ্রপ্রদেশ, তামিলনাড়ু, কর্নাটক এবং পঞ্জাবে গত ২৪ ঘণ্টায় কোভিড সংক্রমণে সবচেয়ে বেশি মৃত্যু হয়েছে। এই ৫ রাজ্যে মৃতের সংখ্যা মোট ৭২৬, যা গত ২৪ ঘণ্টায় মোট মৃতের সংখ্যার ৬৭ শতাংশ।

মহারাষ্ট্রে গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্তের সংখ্যা ১৭,৭৯৪ এবং মৃত্যু হয়েছে ৪১৬ জনের। অন্ধ্রপ্রদেশে গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত হয়েছেন ৭০৭৩ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ৪৮ জনের। তামিলনাড়ুতে আক্রান্তের সংখ্যা ৫৬৭৯, মৃত্যু হয়েছে ৭২ জনের। কর্নাটকে আক্রান্তের সংখ্যা ৮৬৫৫, মৃত্যু হয়েছে ৮৬ জনের। উত্তরপ্রদেশে আক্রান্তের সংখ্যা ৪২৫৬ এবং মৃত্যু হয়েছে ৮৪ জনের।

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More