সোমবার, ডিসেম্বর ৯
TheWall
TheWall

হার-জিত রাজনৈতিক জীবনের অংশ, তবে অমেঠির সঙ্গে আমার সম্পর্কটা ব্যক্তিগত

দ্য ওয়াল ব্যুরো: এক সময়ে সেখানে দাপিয়ে প্রচার চালিয়েছিলেন তিনি। দিন-রাত এক করে লেগে ছিলেন নির্বাচনের আগে মানুষকে বোঝানোর জন্য। তবে সে চেষ্টা অবশ্য বিফল হয়েছে। সাধারণ মানুষ খালি হাতেই ফিরিয়ে দিয়েছে তাঁকে। লোকসভা নির্বাচনে বিজেপি প্রার্থী স্মৃতি ইরানির কাছে এই কেন্দ্র থেকেই হেরে গিয়েছেন তিনি। সেই হারের পরে এই প্রথম ফিরে যাওয়া অমেঠিতে। কংগ্রেসের গড় বলে পরিচিত এই অমেঠিতে এসে যেন নিজের ভুলগুলোই আরও এক বার খুঁটিয়ে দেখতে চাইলেন রাহুল গান্ধী।

গত কয়েক দশক ধরে কংগ্রেস এবং গান্ধী পরিবারকেই ভোট দিয়েছেন অমেঠির জনগণ। কিন্তু এই বছর ৫২ হাজারেরও বেশি ভোটের ব্যবধানে সেখান থেকে জয়লাভ করেন বিজেপি নেত্রী স্মৃতি ইরানি।

বুধবার প্রথমে আমেঠির গৌরীগঞ্জে গিয়ে তিলোই কেন্দ্রের কংগ্রেস নেতা প্রসাদ বৈশের সঙ্গে দেখা করেন  রাহুল। প্রসাদের এক আত্মীয় গত ২৫ জুন মারা যান। সেখানে গিয়ে প্রসাদের ওই আত্মীয়ের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানান রাহুল। তার পরে তিনি ওই এলাকার কংগ্রেস নেতাদের সঙ্গে একটি বৈঠক করেন। সূত্রের খবর, সেই বৈঠকে নিজেদের হারের কারণ পর্যালোচনা করেন রাহুল।

অমেঠির মোট পাঁচটি কেন্দ্র সালোন, অমেঠি, গৌরীগঞ্জ, জগদীশপুর এবং তিলোইয়ের কংগ্রেস বুথ সভাপতিদের সঙ্গেও বৈঠক করেন রাহুল গান্ধী। সফরের সময়ে তিনি মানুষের প্রতি আবেদন রাখেন, যে হেরে গেলেও তাঁকে যেন কখনওই মানুষ দূরের না করে দেয়। তিনি কখনওই তাঁর প্রাক্তন নির্বাচনী কেন্দ্রের সঙ্গে তাঁর সম্পর্ক বিচ্ছিন্ন করতে চান না।

রাহুল বলেন, “অমেঠির সঙ্গে আমার সম্পর্কটা কেবল রাজনৈতিক নয়, ব্যক্তিগতও বটে। হার-জিত রাজনৈতিক জীবনের অংশ। তবে আমি কখনওই অমেঠিকে ছেড়ে যাব না। এখানকার মানুষ তাঁদের কোনও প্রয়োজনে ভোর চারটেতেও আমায় কল করতে পারেন। সব সময় পাশে পাবেন আমায়।”

স্থানীয় সূত্রের খবর, অমেঠিতে রাহুল গান্ধীর সভায় ১২০০ মানুষকে আমন্ত্রণ জানানো হলেও, এ দিন বিনা আমন্ত্রণেই ১৫ হাজারেরও বেশি লোক যোগ দেন। রাহুল দলীয় কর্মীদের উৎসাহিত করে বলেন, কংগ্রেসকে ফিরিয়ে আনার জন্য আরও দীর্ঘ ও কঠিন যুদ্ধের জন্য প্রস্তুত থাকতে হবে। এই যুদ্ধে তিনি নিজে সর্বদা কর্মীদের পাশে দাঁড়াবেন বলেও আশ্বাস দেন তিনি ।

বৈঠকের পর, রাহুল গান্ধী অমেঠির সাধারণ মানুষের সঙ্গে দেখা করেন। স্থানীয়দের সঙ্গে বেশ কয়েকটি ফোটোও তোলেন তিনি। পরে তিনি টুইট করেন, “আমি অমেঠিতে এসে খুব খুশি। অমেঠিতে এলে যেন মনে হয় নিজের বাড়িতে এসেছি।”

দেখুন সেই টুইট।

Comments are closed.