মঙ্গলবার, সেপ্টেম্বর ১৭

ওরা কোর্টকে এত ভয় পাচ্ছে কেন? কংগ্রেসকে পালটা তোপ বিজেপির

দ্য ওয়াল ব্যুরো : প্রাক্তন অর্থমন্ত্রী পি চিদম্বরমকে সিবিআই গ্রেফতার করার আগে থেকেই কংগ্রেস বলে আসছে, তাঁকে হেনস্থা করার জন্য গোয়েন্দাদের লাগিয়েছে সরকার। তিনি সরকারের বিরুদ্ধে মুখ খুলেছিলেন বলে তাঁর ওপরে প্রতিশোধ নেওয়া হচ্ছে। শুক্রবার কংগ্রেসের বিরুদ্ধে পালটা মুখ খুললেন বিজেপির সাংসদ মীনাক্ষী লেখি। তাঁর পালটা তোপ, ওরা আদালতকে ভয় পাচ্ছে কেন? গোয়েন্দা সংস্থাকেই বা সন্দেহ করছে কেন?

পরে তিনি বলেন, আইএনএক্স মিডিয়া কেসে চিদম্বরম অন্যতম অভিযুক্ত। দিল্লিতে একটি ষড়যন্ত্র যে হয়েছিল তাতে কোনও সন্দেহ নেই। এবার আইন অপরাধীদের ধরুক।

এরই মধ্যে পাকিস্তান থেকে সমর্থন করা হয়েছে চিদম্বরমকে। তাতে অস্বস্তিতে পড়েছে কংগ্রেস। পাকিস্তানের সমর্থনের কথা তুলে চিদম্বরমকে আক্রমণ করেছেন বিজেপির রাজ্যসভার সদস্য সুব্রহ্মণ্যম স্বামী। পাকিস্তানের প্রাক্তন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রেহমান মালিক এদিন চিদম্বরমকে গ্রেফতারের নিন্দা করেছেন। সুব্রহ্মণ্যম স্বামী টুইটারে লিখেছেন, পাকিস্তান কেন চিদম্বরমকে এত পছন্দ করে? কারণ ২০০৫ সালে তিনি ব্রিটেনের ডিলেরু নামে এক সংস্থাকে ভারতের নোট ছাপতে দেন। আইবি এবং র-এর গোয়েন্দারা বারণ করেছিলেন। কারণ ওই সংস্থাই পাকিস্তানের নোট ছাপে। সেখানে ভারতের নোট ছাপতে দিলে পাকিস্তানের পক্ষে এদেশের টাকা জাল করা সহজ হবে। কিন্তু তৎকালীন অর্থমন্ত্রী চিদম্বরম গোয়েন্দাদের আপত্তি উড়িয়ে ওই সংস্থাকেই ভারতের নোট ছাপতে দিয়েছিলেন। সুতরাং আইএসআই যে তাঁকে ভালোবাসবে তাতে আশ্চর্যের কিছু নেই।

চিদম্বরমের বিরুদ্ধে অভিযোগ, তিনি অর্থমন্ত্রী থাকাকালীন বিধিবহির্ভূতভাবে আইএনএক্স মিডিয়াকে বিদেশি অর্থ পাওয়ার সুযোগ করে দিয়েছিলেন। ওই সংস্থার অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা ইন্দ্রাণী মুখার্জি রাজসাক্ষী হয়েছেন। তিনি বলেন, ২০০৮ সালে চিদম্বরমের সঙ্গে তাঁর বৈঠক হয়েছিল। তিনি নিজে তৎকালীন অর্থমন্ত্রীকে আবেদন জানিয়েছিলেন, তাঁদের বিদেশি অর্থ পাওয়ার সুযোগ করে দেওয়া হোক।

অভিযোগ, আইএনএক্স মিডিয়াকে বিদেশি অর্থ পাইয়ে দেওয়ার জন্য চিদম্বরমের ছেলে কার্তি ঘুষ নিয়েছিলেন। সেই অর্থে তিনি দেশে ও বিদেশে বিপুল সম্পত্তির মালিক হয়েছেন।

Comments are closed.