ইস্টবেঙ্গলে বায়োডাটা এল দুই বিশ্বকাপার কোচের

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

দ্য ওয়াল ব্যুরো: দল গঠনের কাজে পরে শুরু করে রীতিমতো আসর জমিয়ে দিয়েছে ইস্টবেঙ্গল। ইনভেস্টরের সঙ্গে চুক্তি সম্পাদন করেই তারা আইএসএলের দলগঠনের কাজে নেমে পড়েছে যুদ্ধকালীন তৎপরতায়। এবার ক্লাবের শতবর্ষ উদযাপন বছর চলছে, সেই জন্যই ইনভেস্টরদের তরফ থেকে বলে দেওয়া হয়েছে তারা এই মরসুমে আইএসএল চ্যাম্পিয়ন হওয়ার জন্য যা যা করার সবটাই করবেন।

তার প্রাথমিক লক্ষ্য হিসেবে বিশ্বের সেরা ফুটবল এজেন্টদের সঙ্গে যোগাযোগ করেছেন তারা। সেই হিসেবে ইসবেঙ্গল চাইছে প্রথমেই কোচ নির্বাচন সেরে ফেলতে। কারণ লাল হলুদের হেডস্যার বাছা হয়ে গেলে তাঁর পছন্দমতো দলের ফুটবলারদের নিয়োগ করবেন। আর এই বিষয়ে ইস্টবেঙ্গলে চমক হিসেবে একজন বিশ্বকাপার কোচের বায়োডাটা এসে গিয়েছে। তিনি আর্জেন্টিনার ৭১ বছর বয়সি প্রবীন কোচ জোস পেকারম্যান। এই কিংবদন্তি হেভিওয়েট কোচ এর আগে আর্জেন্টিনা জাতীয় দলে, এমনকি ২০১৪ সালের ব্রাজিল বিশ্বকাপে তিনি কলম্বিয়া দলের কোচ হিসেবে বড় সাফল্য পেয়েছিলেন।

বিশ্ব ফুটবলে তাবড় ট্যাকটিসিয়ান কোচ বলতে যা বোঝায় পেকারম্যান তাই। তবে এক সূত্রে জানা গিয়েছে তিনি ইস্টবেঙ্গলের সঙ্গে বার্ষিক ১৩ কোটি টাকার চুক্তি চেয়েছেন। সেটি নিয়ে ভাবছেন ইনভেস্টররা।

পাশাপাশি কোচ হওয়ার জন্য বায়োডাটা দিয়েছেন নেদারল্যান্ডসের কোচ ৬৮ বছরের বার্ট ভান মারউইক, তিনি নেদারল্যান্ডস দলের হয়ে ২০১০ বিশ্বকাপে দারুণ সাফল্য পেয়েছিলেন। তিনি ডাচদের কাছে দারুণ জনপ্রিয় এক কোচ। তিনি অস্ট্রেলিয়া, সৌদি আরব, কুয়েত জাতীয় দলের হয়ে কাজ করেছেন। নামী ক্লাবের মধ্যে বরুসিয়া ডর্টমুন্ড ও ফেনউডের কোচ ছিলেন, এবং সাফল্যও পান।

যদিও ইস্টবেঙ্গলের কোচ হওয়ার দৌড়ে নিঃশব্দে এগিয়ে রয়েছেন ভারতের প্রাক্তন জাতীয় দলের কোচ স্টিফেন কনস্টানটাইনও। তিনি এ দেশের ফুটবলের হাল-হকিকৎ জানেন, সেই কারণে তাঁর প্রতি কর্তাদের একটা আবেগ রয়েছে। অবশ্য পুরো বিষয়টিই নির্ভর করছে শ্রী সিমেন্ট ফাউন্ডেশনের ওপর। তাঁরা দলের ফুটবলারদের নিয়োগের বিষয়ে দায়িত্ব দিতে চান রেনেডি সিংয়ের ওপর। এর আগে ইস্টবেঙ্গলের হয়ে দীর্ঘদিন খেলেছেন এই মিডফিল্ডার। এর আগে আলভিটো ডি’কুনহা ছিলেন এই কাজে, কিন্তু ইনভেস্টরদের আধিকারিকরা আলভিটোকে চাইছেন না। তাঁরা এ কাজে চান নতুন কোনও মুখ। সেদিক থেকে রেনেডি অনেকটাই এগিয়ে।

এদিকে, সোমবারই আইএসএলে খেলার জন্য দরপত্র জমা দেওয়ার শেষ দিন। ইস্টবেঙ্গলের ইনভেস্টর শ্রী সিমেন্ট তাদের নাম রেজিষ্টার করছে রাজস্থান থেকেই। ইমেলে আবেদনপত্র পাঠাতে হবে, সেই সঙ্গে খেলার জন্য ১৪ কোটি টাকাও দিতে হবে ব্যাঙ্ক ট্রান্সফারের মাধ্যমে। আইএসএলের আয়োজক এফএসডিএল-ই সিদ্ধান্ত নেবে ইস্টবেঙ্গলের আবেদন জমা পড়লে তাদের ফ্রাঞ্চাইজি নাম কী হবে। তার আগে ইনভেস্টররা একটা নামে আবেদন করবে বলে জানা গিয়েছে।

বড় সম্ভাবনা শ্রী সিমেন্ট ইস্টবেঙ্গল ফাউন্ডেশন নামেই আবেদন জমা পড়বে। ইনভেস্টরদের মধ্যে দুইজন প্রতিনিধ বেছে নেওয়া হয়েছে বোর্ড অব ডাইরেক্টর হিসেবে, তাঁরা হলেন সঞ্জীব মেহতা ও প্রকাশকুমার ঝাঙ্গানিয়া। মোট পাঁচজনের ডাইরেক্টর বোর্ড থাকবে, সেখানে ইস্টবেঙ্গল ক্লাবের প্রতিনিধি থাকবেন দুইজন।

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

You might also like

Comments are closed, but trackbacks and pingbacks are open.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More