শুক্রবার, নভেম্বর ১৬

দূষণ গিলছে দিল্লিকে, রাত ১১টা থেকেই বন্ধ হল পণ্য বোঝাই গাড়ির প্রবেশ, নির্দেশ জারি

দ্য ওয়াল ব্যুরো: ধোঁয়াশা ঘিরে ধরেছে দিল্লিকে।পথ খুঁজতে তৎপর প্রশাসন।তাই  দীপাবলি যেতে না যেতেই  ফের পণ্য বোঝাই গাড়িতে লাগাম টানল দিল্লি পুলিশ। রাজধানীতে বড়, মাঝারি পণ্য বোঝাই গাড়ির উপর জারি নিষেধাজ্ঞা। বৃহস্পতিবার রাত ১১টা থেকেই বন্ধ হল পণ্য বোঝাই গাড়ির প্রবেশ। আপাতত ১১ নভেম্বর পর্যন্ত এই নির্দেশ কায়েম থাকবে,জানাচ্ছে দিল্লি পুলিশ।

বৃহস্পতিবার রাত ৮টার পর এই সিদ্ধান্ত দিল্লি পুলিশের। জয়েন্ট কমিশনার অফ পুলিশ ট্রাফিক, অলোক কুমার এদিন জানান, দূষণের সূচক বিপজ্জনক জায়গায় পৌঁছতেই পণ্যবাহী গাড়ির উপর নিষেধাজ্ঞা জারি হয়েছে। তা না হলে দিল্লিতে দূষণ ভয়ানক রূপ নেবে।

১১ নভেম্বর পর্যন্ত পর্যবেক্ষণ চলার পর নিষেধাজ্ঞার সময়সীমা বাড়বে কি না, সেই সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। তবে আপাতত, দিল্লিতে পণ্যবাহী গাড়ির- নো এনট্রি।

ছ’গুণ বেশি দূষিত কলকাতার বায়ু! দেশ জোড়া দূষণ-সূচক বলছে, ‘শুভ’ নয় দীপাবলি

দীপাবলিতে দিল্লির দূষণ লাফিয়ে লাফিয়ে বেড়েছে বলে দাবি পরিবেশবিদদের।সুপ্রিম কোর্টের যাবতীয় বিধি নিষেধ উড়িয়েই দীপাবলিতে   শব্দবাজি ও আতসবাজির তাণ্ডব চলেছে।  দূষণ বিধি অমান্য করলে ফৌজদারি আইনে মামলা দায়েরের সুপারিশও করে দিল্লির দূষণ নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষ। সরকারি ভাবে দূষণ নিয়ন্ত্রণের প্রতিশ্রুতিও মেলে। রাজধানীতে জোড়-বিজোড় ফর্মুলাও প্রয়োগ করে দেখা হয়, তাতে কিছুটা সুরাহা হলেও ফের একই পর্যায়ে পৌঁছেছে দিল্লি।

দূষণ রুখতে গত কয়েকদিন ধরে দিল্লি জুড়ে বিভিন্ন ব্যবস্থা নেওয়া হয়। গত বৃহস্পতিবার থেকে দিল্লিতে চলছে ১০ দিনের দূষণ জনিত আপৎকালীন ব্যবস্থা। বন্ধ রাখা হয়েছে সব রকম নির্মাণ কাজ, কয়লা নির্ভর শিল্প ও কল-কারখানা। ব্যক্তিগত গাড়ির বদলে গণ পরিবহণ ব্যবহারের আর্জি জানিয়েছে প্রশাসন।গণ পরিবহনের সংখ্যা বাড়াতে চালানো হয়েছে অতিরিক্ত ট্রেন ও মেট্রো।

এবার পণ্য বোঝাই গাড়িতে লাগাম টেনে দূষণ রোখার চেষ্টায় দিল্লি পুলিশ। বিভিন্ন জাতীয় সড়কে চলছে পুলিশের টহলদারি। আটকে দেওয়া হচ্ছে ভীন রাজ্য থেকে আসা পণ্য বোঝাই গাড়ি। দূষণ রুখতে দিল্লিবাসীকে আরও একবার ব্যক্তিগত উদ্যোগ নেওয়ার আবেদনও জানিয়েছে প্রশাসন।

The Wall-এর ফেসবুক পেজ লাইক করতে ক্লিক করুন 

Shares

Comments are closed.