বৃহস্পতিবার, জুলাই ১৮

ববির সামনে বৈশালীকে হেনস্থার অভিযোগ, উত্তপ্ত হাওড়ার তৃণমূলের সাংগঠনিক বৈঠক

দ্য ওয়াল ব্যুরো: কাটমানি নিয়ে যে ক্ষোভ রাজ্যের আনাচে কানাচে ছড়িয়ে পড়েছে, তা থেকে বাদ গেল না তৃণমূল কংগ্রেসের অভ্যন্তরীণ সভাও। রাজ্যের পুর ও নগরোন্নয়নমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিমের সামনেই অগ্নিগর্ভ হয়ে উঠল হাওড়া জেলার সাংগঠনিক বৈঠক। বালির বিধায়ক বৈশালী ডালমিয়া অভিযোগ তুললেন, তাঁকে হেনস্থা করা হয়েছে বৈঠকে।

এ দিনের বৈঠকে হাওড়ার ৫৮ নম্বর ওয়ার্ডের প্রাক্তন কাউন্সিলর তফজিল আহমেদ বৈঠকে সরাসরি অভিযোগ তোলেন, বিধায়ক কাটমানি খান। ফুঁসে ওঠেন বৈশালী। সেই ক্ষোভ সাংবাদমাধ্যমের সামনেও উগরে দেন তিনি। বলেন, “আমাকে হেনস্থা করেছে মিটিং-এ। বলছে, আমি নাকি কাটমানি খাই। এক সপ্তাহের মধ্যে প্রমাণ না দিতে পারলে ওঁর বিরুদ্ধে আমি মানহানির মামলা করব।”

প্রাক্তন আইসিসি প্রেসিডেন্ট তথা ময়দানের মহীরুহ প্রয়াত জগমোহন ডালমিয়ার কন্যাকে ২০১৬-তে বালিতে টিকিট দিয়েছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ১১-র ভোটে জিতেছিলেন প্রাক্তন আইপিএস সুলতান সিং। কিন্তু ১৬-তে তাঁকে সরিয়ে দেন দিদি। বৈশালীর জিততে কোনও অসুবিধে হয়নি। কিন্তু এ বার হাওড়ায় প্রসূন জিতলেও বালিতে মাত্র ৩০৯ ভোটের লিড পেয়েছে তৃণমূল।

এ দিনের বৈঠকে ফিরহাদের সামনেই উত্তর হাওড়ার বিধায়ক তথা রাজ্যের ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী লক্ষ্মীরতন শুক্লর বিরুদ্ধে ক্ষোভ জানান বেশ কয়েকজন কাউন্সিলর। জানা গিয়েছে, প্রাক্তন মেয়র পারিষদ গৌতম চৌধুরী স্পষ্ট বলেছেন, “ভোটের সময় উত্তর হাওড়ার বিধায়ক নিজের জন্মদিন পালনে বেশি ব্যস্ত ছিলেন। মানুষ এটা ভাল ভাবে নেয়নি।” উল্লেখ্য, উত্তর হাওড়া বিধানসভা এলাকায় লিড পেয়েছে বিজেপি।

তবে ফের একবার প্রকাশ্যে চলে এল তৃণমূলের ভিতরকার ছবিটা। পর্যবেক্ষকদের মতে, রাজ্যের মন্ত্রী তথা তৃণমূলের সামনের সারির নেতার সামনে যদি মহিলা বিধায়ক হেনস্থার অভিযোগ তোলেন, তা হলে তো তা মারাত্মক!

Comments are closed.