বৃহস্পতিবার, মার্চ ২১

পর্যাপ্ত নিরাপত্তা সম্ভব নয়, তাই জম্মু ও কাশ্মীরে লোকসভা নির্বাচন হলেও স্থগিত বিধানসভা নির্বাচন

দ্য ওয়াল ব্যুরো: দেশের বাকি রাজ্যগুলির সঙ্গে জম্মু ও কাশ্মীরে একই সময়ে লোকসভা নির্বাচন হলেও এখনই সেখানে বিধানসভা নির্বাচন হবে না বলে জানিয়ে দিল নির্বাচন কমিশন।

১৪ ফেব্রুয়ারি পুলওয়ামায় আত্মঘাতী জঙ্গিহানায় ৪৪ জন সেনা শহিদ হওয়ার ঘটনায় ও তার ১২ দিন পরে পাক অধিকৃত কাশ্মীরের বালাকোটে ভারতীয় বায়ুসেনার এয়ার স্ট্রাইকের জেরে উপত্যকার পরিস্থিতি কার্যত অগ্নিগর্ভ হয়ে উঠেছে। লাগাতার সংঘর্ষবিরতি চলছে নিয়ন্ত্রণরেখা জুড়ে। এই পরিস্থিতিতে সেখানে বিধানসভা নির্বাচন না করার সিদ্দান্ত নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে কমিশন।

জম্মু ও কাশ্মীরে বিধানসভা নির্বাচন না হলেও, অরুণাচল প্রদেশ, অন্ধ্রপ্রদেশ, ওড়িশা, ও সিকিম– এই চার রাজ্যে লোকসভা নির্বাচনের সঙ্গে সঙ্গেই বিধানসভা নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে বলে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে। 

বস্তুত, তেমনটাই কথা ছিল জম্মু ও কাশ্মীরের ক্ষেত্রেও। ঘোষণা করা হয়েছিল, লোকসভা নির্বাচনের সঙ্গেই করা হবে বিধানসভা নির্বাচন। কিন্তু সাম্প্রতিক পরিস্থিতির নিরিখে সেখানে বিধানসভা নির্বাচন নিরাপদে করা যাবে না বলেই মনে করছে কমিশন।

আজ, রবিবার ভারতের আসন্ন লোকসভা নির্বাচনের দিন ঘোষণার সঙ্গে সঙ্গে চার রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচনের দিনও ঘোষণা করা হয়েছে। চার রাজ্যের মধ্যে একমাত্র ওড়িশায় চার দফায় ভোট হবে। এ ছাড়া অরুণাচল প্রদেশ, অন্ধ্রপ্রদেশ, ও সিকিমে এক দফাতেই ভোট গ্রহণ করা হবে। সেই সঙ্গেই ই চার রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচনও চলবে সমান্তরাল ভাবে।

পাশাপাশি, দেশের ১২টি রাজ্যে ৭৪টি বিধানসভা আসন ফাঁকা রয়েছে। এই উপনির্বাচনগুলিরও ভোটগ্রহণ করা হবে লোকসভা নির্বাচনের সময়ই। তবে গত নভেম্বর থেকে রাষ্ট্রপতি শাসনের আওতায় থাকা জম্মু ও কাশ্মীরে এখন শুধুই লোকসভা নির্বাচন হবে। বিধানসভার দিন পরে ঘোষণা করা হবে সেখানে।

কেন এই সিদ্ধান্ত? কমিশন এ বিষয়ে জানিয়েছে, একসঙ্গে দু’টি নির্বাচন করানোর মতো যথেষ্ট নিরাপত্তাকর্মীর অভাব রয়েছে উপত্যকায়। ১৯৯৬ সালের পরে এই প্রথম বিধানসভা নির্বাচন স্থগিত হল জম্মু ও কাশ্মীরে।

এই বিষয়ে টুইট করেছেন জম্মু ও কাশ্মীরের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ওমর আবদুল্লাও।

যদিও লোকসভা নির্বাচনের সঙ্গেই বিধানসভা নির্বাচন আয়োজন করার দাবি দীর্ঘদিন ধরে জানিয়ে আসছে বিজেপি। বিরোধীরা অবশ্য এই ব্যবস্থার বেশ কিছু সমস্যার জায়গা তুলে ধরেছিল। কিন্তু, শেষ পর্যন্ত সেই দাবিই মানল কমিশন।

তবে বিধানসভা না হলেও জম্মু-কাশ্মীরে লোকসভা নির্বাচন হবে। প্রথম দফায় জম্মু-কাশ্মীরে দু’টি আসনে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। দ্বিতীয় দফা ২, তৃতীয় একটি, চতুর্থ দফা ১টি আসনে, পঞ্চম দফা দু’টি আসনে। আগামী ২৭ মে-র মধ্যে সম্পন্ন হবে নির্বাচনী প্রক্রিয়া। ১৮-২৫ মার্চ মনোনয়ন পেশ হবে এবং ২৩ মে ফল প্রকাশ হবে।

জানা গিয়েছে, সারা দেশের মোট ৫৪৩টি আসনে লোকসভা নির্বাচনের নির্ঘণ্ট ঘোষণা করছে নির্বাচন কমিশন। ভোট শুরু হবে ১১ এপ্রিল থেকে। মোট সাতটি দফায় হবে ভোটগ্রহণ। ভোট গণনা হবে ২৩ মে। বিজ্ঞান ভবনে এই সাংবাদিক বৈঠক করছেন মুখ্য নির্বাচন কমিশনার সুনীল অরোরা।

এই নির্ঘণ্ট ঘোষণার সঙ্গেই সারা দেশে চালু হয়ে যাচ্ছে নির্বাচনী আচরণ বিধি। যেমন, নতুন কোনও প্রকল্পের ঘোষণা করতে পারবে না কেন্দ্র এবং রাজ্য সরকারগুলি।

Shares

Comments are closed.