মঙ্গলবার, নভেম্বর ১২

‘ভুলে ভরা এনআরসি’, প্রতীক হাজেলাকে তীব্র আক্রমণ বিজেপির

দ্য ওয়াল ব্যুরো : অসমে জাতীয় নাগরিকপঞ্জি তৈরির দায়িত্বে থাকা অফিসার প্রতীক হাজেলাকে গত শুক্রবারই মধ্যপ্রদেশে বদলি করে দিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট। শনিবার ফের তাঁর বিরুদ্ধে সরব হল বিজেপি। রাজ্য বিজেপির সভাপতি রঞ্জিত কুমার দাস বলেন, অসমিয়াদের ভাবাবেগ নিয়ে খেলা করছেন হাজেলা। বিজেপির দাবি, এনআরসি করার নামে হাজেলা যে ১৬০০ কোটি টাকা খরচ করেছেন, তার প্রতিটি পাই পয়সার হিসাব দিতে হবে। সেই হিসাব না দেওয়া পর্যন্ত তাঁকে কোথাও বদলি করা যাবে না।

অসম বিজেপি রাজ্য ও কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে আবেদন জানিয়েছে, এনআরসি কো-অর্ডিনেটর হাজেলার বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টে সরব হোন। গত শুক্রবার যখন হাজেলাকে বদলি করা হয়, প্রশাসনের সর্বোচ্চ স্তরের অফিসাররাও অবাক হয়ে গিয়েছিলেন। প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈয়ের নেতৃত্বে এক বেঞ্চ কেন্দ্রীয় সরকারকে বলে, অবিলম্বে হাজেলাকে বদলি করতে হবে। সর্বোচ্চ আদালত কোনও কারণ দেখায়নি। পরে হাজেলা মিডিয়াকে বলেন, আমাকে কোর্ট নিয়োগ করেছে। আমি আদালতকে আমার বক্তব্য জানিয়েছি। এবার আদালতই আমাকে বদলি করেছে।

ছ’বছর আগে সুপ্রিম কোর্ট প্রতীক হাজেলাকে অসমে জাতীয় নাগরিকপঞ্জি তৈরির কাজ তদারক করার দায়িত্ব দেয়। হাজেলার টিমে ছিলেন ৫০ হাজার অফিসার। হাজেলা আইআইটি-র প্রাক্তন ছাত্র। নাগরিকপঞ্জিতে ভুল থাকার অভিযোগে বিভিন্ন রাজনৈতিক দল এবং নাগরিক সমাজ অতীতে তাঁর সমালোচনা করেছে। সবচেয়ে কঠোর সমালোচনা করেছে অসমের বিজেপি। তাদের অভিযোগ, অনেক ভারতীয় হিন্দুর নাম এনআরসি থেকে বাদ পড়েছে।

Comments are closed.