পদত্যাগ করলেন আঁখি দাস, রাজনৈতিক পোস্ট নিয়ে বিতর্কে জড়ান ফেসবুক ইন্ডিয়ার পাবলিক পলিসির প্রধান

১,৯৭১

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

দ্য ওয়াল ব্যুরো: ফেসবুক ইন্ডিয়ার পাবলিক পলিসির প্রধান আঁখি দাস রাজনৈতির বির্তকে জড়িয়ে কোম্পানি থেকে পদত্যাগ করেছেন বলে জানালেন ম্যানেজিং ডিরেক্টর অজিত মোহন। ফেসবুক ইন্ডিয়া সূত্রে জানা গেছে, ফেসবুকে জাতি, ধর্মের বিরুদ্ধে বিদ্বেষ ছড়ানোর পোস্ট ব্লক করার ক্ষেত্রে তিনি সঠিক ভূমিকা পালন করেননি, এমনটাই দাবি করেছেন অনেকে। তাঁর অবস্থানের পক্ষে ও বিপক্ষে ফেসবুকের সঙ্গে আঁখি দাসের বাকবিতণ্ডা চলছিল বেশ কিছু দিন ধরে। শেষ পর্যন্ত তিনি নিজেই ইস্তফা দেন।

ফেসবুক এখন পৃথিবীর সবচেয়ে জনপ্রিয় গণমাধ্যম। আর এখানে রাজনৈতিক বিষয়বস্তু বা ব্লগগুলো কেমন ভাবে নিয়ন্ত্রিত হয়, তা নিয়ে বহু মানুষ প্রশ্ন তুলেছেন। তেমনই সম্প্রতি তীব্র ক্ষোভের বহিঃপ্রকাশও ঘটেছে। ‘দ্য ওয়াল স্ট্রিট জার্নাল’ ও ‘টাইমস’ ম্যাগাজিন ফেসবুকের এই কর্মকাণ্ডের বিরুদ্ধে অভিযোগও তোলেন।

তবে সাম্প্রতিক বিতর্কের মূলে ছিল, বিজেপির দ্বারা ধর্মের বিরুদ্ধে ঘৃণাবিদ্বেষ ছড়ানোর কোনও এক  পোস্টে ফেসবুকের তরফ থেকে কড়া অবস্থান না নেওয়ার বা সদর্থক ভূমিকা পালন না করার অভিযোগ। জানা গেছে, আঁখি দাসের যুক্তি, এ দেশের শাসকদল বিজেপির পোস্টের বিরুদ্ধে কোনও ব্যবস্থা নিলে কোম্পানির ক্ষতি হতে পারে, সেক্ষেত্রে ভারতে তাদের কোম্পানি নানা অসুবিধার সম্মুখীন হতে পারে। এই ভাবনা থেকেই তিনি কোনও ব্যবস্থা নেননি বলে জানান।

কিন্তু দেশে তো বটেই, বিদেশি জার্নালেও ফেসবুকের বিরুদ্ধে প্রকাশিত বক্তব্যকে ঘিরে তোলপাড় শুরু হয়। যদিও ফেসবুকের তরফ থেকে জানানো হয়, তারা ঘৃণা বা বিদ্বেষ ছড়ানোর পোস্ট বা কনটেন্ট ব্লক করেন তৎক্ষণাৎ। এই নিয়ম সারা পৃথিবীর বিভিন্ন দেশের জন্যও প্রযোজ্য। তবে কার্যক্ষেত্রে এমনটা হয়নি বলেই অভিযোগ।

এমডি অজিত মোহন জানান, আঁখি দাস ফেসবুকের অনেক দিনের পুরনো কর্মী। ২০১১ সাল থেকে তিনি যুক্ত রয়েছেন সংস্থার সঙ্গে। গত ৯ বছর ধরে ফেসবুকের নানা কর্মকাণ্ডে তিনি সক্রিয় ভূমিকা পালন করেছেন। আগামী দিনে ফেসবুকের তরফে এ বিষয়ে আরও সতর্ক থাকা হবে বলেই জানিয়েছেন অজিত মোহন।

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More