সোমবার, ডিসেম্বর ৯
TheWall
TheWall

২০২৪ সালের মধ্যে সব অনুপ্রবেশকারীকে তাড়াবে ভারত, ঘোষণা অমিতের

দ্য ওয়াল ব্যুরো : লোকসভার চলতি অধিবেশনেই নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল আনতে চলেছে সরকার। তার আগে সোমবার ঝাড়খণ্ডে গিয়ে বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ বললেন, ২০২৪ সালের মধ্যেই সব অনুপ্রবেশকারীকে তাড়িয়ে দেওয়া হবে। ঝাড়খণ্ডে ভোটের প্রচার চালাতে গিয়েছেন বিজেপি সভাপতি। তিনি কংগ্রেসের সমালোচনা করে বলেন, প্রাক্তন সভাপতি রাহুল গান্ধী দেশ জুড়ে জাতীয় নাগরিকপঞ্জি তৈরির বিরোধিতা করছেন। অনুপ্রবেশকারীদের তাড়িয়ে দেওয়ার ব্যাপারেও তাঁর আপত্তি আছে।

এদিন ঝাড়খণ্ডের ইস্ট সিংভুম জেলার বাহারগোড়ায় সভা করেন অমিত। তিনি বলেন, “ঝাড়খণ্ড এবং সারা দেশ থেকেই কি অনুপ্রবেশকারীদের লাথি মেরে তাড়ানো উচিত নয়?” এরপরে রাহুল গান্ধীকে কটাক্ষ করে তিনি বলেন, “কিন্তু রাহুল বাবা বলছেন, জাতীয় নাগরিকপঞ্জি তৈরির দরকার নেই। তাহলে অনুপ্রবেশকারীরা কোথায় যাবে? কী খাবে?” এদিন রাহুলও ঝাড়খণ্ডে সভা করেন। অমিত শাহ তাঁকে কটাক্ষ করে বলেন, “রাহুল যা বলতে চান, তাঁকে বলতে দিন। আমি আপনাদের জানাতে এসেছি, ২০২৪ সালের মধ্যে আমরা প্রত্যেক অনুপ্রবেশকারীকে দেশ থেকে তাড়াব।”

জনসভার শুরুতে অমিত বিস্তারিতভাবে বলেন, রাজ্যে মুখ্যমন্ত্রী রঘুবর দাস কী উন্নয়নমূলক কাজ করেছেন। কেন্দ্রে নরেন্দ্র মোদীর কাজকর্মেরও এক তালিকা পেশ করেন তিনি। তাঁর কথায়, “সরকারের উন্নয়নমূলক কাজকর্মের তালিকা অনেক দীর্ঘ।” এরপর তিনি জম্মু-কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা রদ করার কথা বলেন। অযোধ্যা নিয়ে সুপ্রিম কোর্টের সাম্প্রতিক রায়ের কথাও উল্লেখ করেন।

কেন্দ্রীয় সরকার ইতিমধ্যে ঘোষণা করেছে, অসমে ফের নাগরিকপঞ্জি তৈরি হবে। তার বক্তব্য, বিরোধীদের অভিযোগ সত্যি নয়। নাগরিকপঞ্জি তৈরির সময় কোনও নির্দিষ্ট সম্প্রদায়কে টার্গেট করা হয়নি।

Comments are closed.