রবিবার, ডিসেম্বর ১৫
TheWall
TheWall

অমিত শাহ মোদীকে জানাননি, উদ্ধবের সঙ্গে তাঁর কী কথা হয়েছিল, অভিযোগ শিবসেনার

দ্য ওয়াল ব্যুরো : প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী মহারাষ্ট্রে ভোটের প্রচারে এসে বার বার বলেছিলেন, দেবেন্দ্র ফড়নবিশই ফের মুখ্যমন্ত্রী হবেন। তখন কেন শিবসেনা আপত্তি করেনি? গত বুধবার প্রাক্তন জোট শরিক শিবসেনার বিরুদ্ধে এমনই অভিযোগ করেছিলেন বিজেপির সভাপতি অমিত শাহ। বৃহস্পতিবার তার পালটা জবাব দিল শিবসেনা। দলের সাংসদ সঞ্জয় রাউত বলেন, অমিত শাহের সঙ্গেই আমাদের শীর্ষ নেতা উদ্ধব ঠাকরের কথা হয়েছিল, মুখ্যমন্ত্রীর পদটি আড়াই বছরের জন্য শিবসেনাকে দেওয়া হবে। অমিত নিশ্চয় সেকথা মোদীকে জানাননি। তাই তিনি ভোটের প্রচারে এসে বলতেন, দেবেন্দ্র ফড়নবিশই মুখ্যমন্ত্রী হবেন।

গত ২৪ অক্টোবর মহারাষ্ট্রে ভোটের ফল প্রকাশিত হয়। শিবসেনা ও বিজেপি মিলে স্বচ্ছন্দে সরকার গঠন করতে পারত। কিন্তু উদ্ধব ঠাকরের দল দাবি করে, ৫০-৫০ ফর্মুলায় সরকার গড়তে হবে। মুখ্যমন্ত্রীর পদটি তাদের ছেড়ে দিতে হবে আড়াই বছরের জন্য। শিবসেনার দাবি, লোকসভা ভোটের আগেই অমিত শাহের সঙ্গে তাদের এব্যাপারে কথা হয়েছিল।

বৃহস্পতিবার সঞ্জয় রাউত বলেন, ভোটের আগে উদ্ধব ঠাকরেও তো বলেছিলেন, শিবসেনা থেকে কেউ মুখ্যমন্ত্রী হবেন। তখন বিজেপি প্রতিবাদ করেনি কেন?

মোদী সম্পর্কে তিনি বলেন, “প্রধানমন্ত্রীকে আমরা অত্যন্ত সম্মান করি। তিনি প্রচারে এসে যে বলেছেন, তার প্রতিবাদ করলে তাঁকে অসম্মান করা হত।” এর পরেই তিনি বলেন, “মনে হচ্ছে অমিত শাহ মোদীকে বলেননি, আমাদের সঙ্গে তাঁর কী কথা হয়েছিল।”

বিজেপি কিছুতেই ৫০-৫০ ফর্মুলায় শিবসেনার সঙ্গে সরকার গড়তে রাজি নয়। তাই উদ্ধব ঠাকরে চাইছেন কংগ্রেস ও এনসিপি-র সঙ্গে জোট বেঁধে সরকার গড়তে। কংগ্রেস পেয়েছে ৫৪ টি আসন, এনসিপি পেয়েছে ৪৪ টি। এর মধ্যে মহারাষ্ট্রে জারি হয়েছে রাষ্ট্রপতি শাসন।

Comments are closed.