মাস্ক পরেই শ্যুটিং, সবার আগে ক্যামেরার সামনে ফিরলেন অক্ষয় কুমার

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

দ্য ওয়াল ব্যুরো: দেশে লকডাউন চালু হওয়ার আগেই বন্ধ হয়ে যায় সিনেমা, সিরায়াল, বিজ্ঞাপন সবের শ্যুটিং। সম্প্রতিই চতুর্থ দফার লকডাউনের মধ্যে বিধিনিষেধ মেনে শ্যুটিং শুরুর অনুমতি দিয়েছে মহারাষ্ট্র সরকার। সেই অনুমতি মিলতেই একটি সরকারি বিজ্ঞাপনের জন্য শ্যুটিং সারলেন অক্ষয় কুমার।

মাস্ক পরেই ‘লাইট, সাউন্ড, ক্যামেরা, অ্যাকশন’-এর দুনিয়ায় ফিরলেন অক্ষয় কুমার। চলচ্চিত্র নির্মাতা আর বল্কি সোমবার ‘লকডাউন-পরবর্তী সচেতনতা’ বিষয়ে প্রচারের জন্য একটি বিজ্ঞাপনের শ্যুটিং করলেন মুম্বইয়ের কমলিস্তানে। সরকারি সব রকম বিধিনিষেধ মেনেই ছোট্ট টিম নিয়ে হল শ্যুটিং। আর বল্কি জানিয়েছেন, স্বাস্থ্যমন্ত্রকের জন্য এই ‌বিজ্ঞাপন বানাচ্ছেন তিনি। সকলে মাস্ক পরে, সামাজিক দূরত্ব রক্ষা করে, ন্যূনতম কর্মী নিয়ে শ্যুটিং চলছে।

View this post on Instagram

Yes, That is Akshay Kumar @akshaykumar back at the shoot⁣ . ⁣ . ⁣ Yes, you saw it right. Just a few days back we heard Maharashtra CM permitting shooting to resume with proper safety measure taken care of and it started today. The first film during Corona Lockdown is on floors. R Balki shoots a film with a social message starring Akshay Kumar. You can see the pictures of the shoot taking place at Kamalistan Studio. Take a close look at them as this is how all the shoots are going to happen post lockdown. This is the new normal. With legal permissions and proper safety precautions at place, Akshay started shooting for his upcoming project. This is exactly how all our new shoots are going to happen. Back on the sets, the team is shooting for a film based on public service, will be produced by R Balki. ⁣ ⁣ #AkshayKumar ⁣ #rbalki⁣ #COVID19 ⁣ #CoronaVirus ⁣ #shooting⁣ #shootingincoronatimes ⁣ #bollywoodupdate ⁣ #bollywoodactor⁣ #bollywoodmovies ⁣ #indianfilmhistory ⁣ #ifhofficial ⁣ #bollywoodlover⁣ #bollywoodcelebrity

A post shared by Indian Film History (@indianfilmhistory_official) on

কেন্দ্রীয় সরকারের এই বিজ্ঞাপনে প্রধান ভূমিকায় রয়েছেন অক্ষয় কুমার। লকডাউনের পরে আমাদের কী কী দায়িত্ব থাকবে তা নিয়েই বিজ্ঞাপন। কল্কি আরও জানিয়েছেন, “আমাদের কাজে ফিরতেই হবে। কিন্তু নিজেদের ও অন্যদের নিরাপত্তার বিষয়টি নিয়েও সচেতন থাকতে হবে। আমাদের শ্যুটিংয়েও আমরা সেটা বজায় রেখেছি।”

আরও পড়ুন

গোপনে তিন নম্বর বিয়ে! নোবেলের দাবি আগেরগুলো স্রেফ রিলেশন, পণ নিলেন ৫ লাখ টাকা

সংবাদ সংস্থা পিটিআইকে তিনি বলেন, ‘‘স্যানিটাইজ করা আউটডোর সেট, জীবাণুবিহীন স্ক্রিন, মাস্ক-সহ কাজে ফিরলাম সামাজিক দূরত্ব মেনে। কয়েক মিনিটের মধ্যে সেগুলির সঙ্গে মানিয়েও নিলাম। ন্যূনতম ক্রু সদস্য ও অত্যন্ত কড়া প্রোটোকলেই শ্যুটিং হচ্ছে। প্রযোজক অনিল নাইডু আমাদের দেখিয়ে দিলেন কী করে ন্যূনতম লোকবল ও অধিকতর সুরক্ষা ব্যবস্থায় কাজ করা সম্ভব। অবশ্যই আমরা পুলিশ বা অন্যান্যদের থেকে অনুমতি নিয়েছি। আমরা এটা করছি, কারণ এই বার্তাটা দেওয়া অত্যন্ত জরুরি।” জানা গিয়েছে, শ্যুটিংয়ের আগে সমস্ত সদস্যকে জীবাণুনাশক টানেলের মধ্যে দিয়ে যেতে হয়েছে। এর পর তাঁদের মাস্ক, ফেস শিল্ড দেওয়া হয়েছে। পিপিই পরিহিত চিকিৎসা কর্মীরা তাঁদের স্ক্রিনিংও করেছেন।

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

You might also like

Comments are closed, but trackbacks and pingbacks are open.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More