শনিবার, মার্চ ২৩

পুলওয়ামা হামলার জন্য সেনারাই দায়ী! সিধুর পরে ফের বিতর্কিত মন্তব্য কংগ্রেস নেত্রীর

দ্য ওয়াল ব্যুরো: পুলওয়ামা হামলায় ৪৯ জন সেনা জওয়ানের মৃত্য়ু গোটা দেশের ভিত নাড়িয়ে দিয়েছে কার্যত। শহিদ জওয়ানদের বলিদানকে গোটা দেশ আনম্র শ্রদ্ধা জানাচ্ছে। আর তখনই সেই সেনাদেরই এত বড় ঘটনার জন্য দোষারোপ করলেন এক কংগ্রেস নেত্রী।

প্রাক্তন সাংসদ তথা উত্তরপ্রদেশের বর্ষীয়ান কংগ্রেস নেত্রী নূর বানোর দাবি, পুলওয়ামা হামলার জন্য দায়ী সেনারাই। এই হামলা সেনা জওয়ানদেরই ব্যর্থতা। নভজ্যোৎ সিং সিধুর পর আরও এক কংগ্রেস নেতার এমন বক্তব্যে বেশ অস্বস্তিতে দল।

পুলওয়ামা হামলার ঘটনার পরেই কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী সাফ জানিয়েছিলেন, সেনার মৃত্যু নিয়ে কোনও রকম রাজনীতি তাঁরা করতে চান না। এই পরিস্থিতিতে সেনা এবং সরকারের পাশে থাকবে বিরোধীরা। সেই মতো কংগ্রেসের শীর্ষ নেতারা বা রাহুল নিজে এখনও পুলওয়ামা কাণ্ড নিয়ে কোনও বিতর্কিত মন্তব্য করেননি।
কিন্তু, রাহুলের সেই নির্দেশ হয়তো দলের সব স্তরে এখনও পৌঁছায়নি। কারণ, ইতিমধ্যেই পুলওয়ামা হামলা নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য করে ফেলেছেন পাঞ্জাবের মন্ত্রী তথা প্রাক্তন ক্রিকেটার নভজ্যোৎ সিং সিধু। 
পাঞ্জাবের মন্ত্রী নভজ্যোৎ সিং সিধু বলেছিলেন, এই হামলার জন্য গোটা পাকিস্তানকে দায়ী করা উচিত নয়। কয়েক জন জঙ্গির কাজের জন্য আমরা গোটা দেশকে দোষারোপ করতে পারি না। তাঁর এই মন্তব্যের পরই সোশ্যাল মিডিয়ায় ক্ষোভ ছড়িয়ে পড়ে। এমনকী সিধুকে জনপ্রিয় রিয়ালিটি শোয়ের চাকরি খোয়াতে হয়। তাঁকে পাঞ্জাবের মন্ত্রিসভা থেকেও বরখাস্ত করার দাবি উঠতে থাকে। এমনকী দলও তাঁর মন্তব্যকে সমর্থন করেনি।
এবার সেই তালিকায় যোগ হল উত্তরপ্রদেশের কংগ্রেস নেতা তথা প্রাক্তন সাংসদ নূর বানোর নামও। ওই নেত্রীর দাবি, পুলওয়ামা হামলার জন্য সেনা নিজেই দায়ী। তিনি বলেন, “এই হামলা আটকানোই সেনার কাজ। আগে থেকেই হামলার ইঙ্গিত ছিল, তাহলে কেন কোনও রকম ব্যবস্থা নেওয়া হল না। এই হামলার জন্য দায়ী একমাত্র সেনাই।”
নূর বানো আরও বলেন, “যা ঘটেছে তা খারাপ এবং দুঃখজনক। এই হামলা আমাদের প্রভাবিত করেছে। তবে, আরও চিন্তার বিষয় এই হামলাকে কী ভাবে কাজে লাগায় বিজেপি।” কংগ্রেস নেত্রীর এই বক্তব্যের পরই সোশ্যাল মিডিয়ায় তাঁর বিরুদ্ধে ছড়িয়ে পড়েছে ক্ষোভ।
Shares

Comments are closed.