শুক্রবার, ডিসেম্বর ৬
TheWall
TheWall

এসে গেল বিয়ের মরসুম, চোখধাঁধানো গয়নায় অনন্যা হয়ে উঠুন আপনিও

দ্য ওয়াল ব্যুরো: শীতকাল এসে গেল প্রায়। আর শীতকাল মানেই আরও অনেক উৎসব পর্বের মতোই বাঙালির বিয়ে পর্বও শুরু। দিকে দিকে সেজে উঠবে অনুষ্ঠান বাড়ি, ফুলের সাজে ঢাকা গাড়ি দেখা যাবে রাস্তায়। মনমাতানো খাবারের মেনু তাক করে নিমন্ত্রণ রক্ষায় ছুটবেন ভোজনরসিকের দল। আর এ সবের মাঝেই নিজের সেরা সাজটার জন্য প্রস্তুত হবেন কনেরা। নতুন শাড়ি-গয়না-মেকাপে ভরে উঠবে আলমারি। একটি দিনকে ঘিরে পরিকল্পনা ঘনাবে কত না ঘরে ঘরে।

কিন্তু সে যত কিছুই হোক না কেন, আজও বহু পরিবারে বিয়ের প্রথম ও প্রধান ভাবনা কিন্তু কনের গয়না। সে জন্যই সোনার দামের দিকে সারা বছর তাকিয়ে, হিসেব-নিকেশ করে গয়না গড়ানো শুরু হয়ে যায় আগে থেকেই। তবে এখন ব্যস্ত জেনারেশনে এখন সবই রেডিমেড। আলাদা করে ডিজ়াইন খুঁজে গয়না গড়ানোর ঝক্কি অনেকেই পোহাতে চান না। অবশ্য বাজার জুড়ে যে সব মনমাতানো কালেকশন রয়েছে, তাতে আর সে ঝক্কি দরকারও পড়ে না। সেনকো গোল্ড অ্যান্ড ডায়মন্ডসের ‘বিবাহ’ কালেকশনে চোখ রাখলেই বোঝা যায়, যে এমন সম্ভার হাতের কাছে পেলে পছন্দ না হয়ে উপায় নেই।

সময়ের সঙ্গে তাল মিলিয়ে, জেনারেশন ওয়াইয়ের পছন্দ বুঝে, একেবারে হালফ্যাশানের কালেকশন হাজির করেছে তারা। তারা বোঝে, হাল্কা গয়না যতই সাশ্রয়ী ও জনপ্রিয় হোক, বিয়ের দিনে একটু সাবেকি সাজ সকলেরই পছন্দ। সেই বুঝেই গয়নার অফুরন্ত ডিজ়াইন মিলবে তাদের কাছে। তবে শুধু বাঙালিদের জন্য নয় কিন্তু, উত্তর ভারত হোক বা দক্ষিণ ভারত, দেশের সব প্রান্তের বিয়ের ঐতিহ্য মেনে বিবাহ কালেকশন সাজিয়েছে তারা। আর সেই প্রতিটি গয়নায় আধুনিকতার সঙ্গে হাত ধরেছে ঐতিহ্য। বিয়ের দিনে অনন্যা হয়ে উঠতে হলে এক বার চোখ বুলিয়ে নেওয়াই যায় হাল্কা সোনায় গা-ভরানো গয়নার সম্ভারে।

লাল বেনারসি পরা অপরূপা বাঙালি বধূকে সাজিয়ে তোলার জন্য সেনকো গোল্ড অ্যান্ড ডায়মন্ডের কালেকশন শুরু হয়েছে ছোট্ট সোনার মুকুট দিয়ে। চন্দন-চর্চিত কপালের উপরে টিকলি না ঝুললে কিন্তু সম্পূর্ণ হবে না মাথার সাজ। এর পরে নাকভরা নোলক আর কানভরা ঝুমকো তো আছেই। গলার নেকলেস, হাতের বালা-চূড়, কোমরের চেন– সবই পাবেন সাধ অনুযায়ী। সাধ্যও আপনার নাগালের মধ্যেই থাকবে।

সেনকোর এগজিকিউটিভ ডিরেক্টর শুভঙ্কর সেন জানাচ্ছেন, এই একটা দিন বাঙালি মেয়েরা রানির মতো হয়ে উঠতে চায়। চায়, তার দ্যুতিতে সকলের চোখ ধাঁধিয়ে দিতে। তাই নতুন করে আবার ফিরে আসছে পুরনো গয়নারাই। সাধারণ ছোট কানের দুলের বদলে সেই পুরনো দিনের কানবালি খুঁজছে তারা। ভারী ঝুমকোর দিকেও নজর অনেকের। মাথা ভরা সোনার সাজও এখন বেশ ইন। শাঁখা-পলাতেও নতুনত্ব খুঁজছে অনেকে। “এই সবটাই মাথায় রেখে, একই সঙ্গে এখনকার সময়টাকে বুঝে, কালেকশন নিয়ে এসেছি আমরা।”– বললেন শুভঙ্করবাবু।

আবার কাঞ্জিভরমে সাজা দক্ষিণী কনেদের সাজেও সমান ভাবে পাশ করে যাবে সেনকো গোল্ড অ্যান্ড ডায়মন্ডস। লম্বা গলা জুড়ে ধাপে ধাপে নেমে আসা নেকলেসের ঝালর হোক, বা হৃষ্টপুষ্ট কোমরবন্ধনী– সবই মিলবে সেনকোর অন্দরে। কপাল ও মাথা ভরানো বড় টিকলিও দক্ষিণী কনেদের বিশেষত্ব। মিলবে তেমনটাও। ঝোলা, বড় কানের দুল তো আছেই। আছে চুড়িও।

বিহারি হোক বা মারাঠি, পাঞ্জাবি হোক বা ওড়িয়া– বিয়ের কনে যেমন সাজই চান না কেন তেমনটাই এনে হাজির করবে সেনকো। শহর কলকাতা এখন কসমোপলিটন শহর। বহু অবাঙালি মেয়েদেরও বিয়ে হচ্ছে এখানে। কিন্তু বাংলার বুকে বিয়ে করলেও, নিজেদের সংস্কার বা ঐতিহ্য এই দিনটায় সকলেই রক্ষা করেন। তাই বিয়ের সাজেও তেমন ছাপই চান তাঁরা। ফলে সকলের কথা ভেবেই এই বিয়ের মরসুমের আগে অনন্য বিবাহ কালেকশন হাজির করেছে সেনকো গোল্ড অ্যান্ড ডায়মন্ডস।

তবে এই বিয়ের মরসুমে কেউ যদি ভাবেন, যত সাজ শুধু কনেদের জন্যই তারা কিন্তু ভুল করছেন। সেনকো কিন্তু পিছিয়ে নেই পুরুষদের জন্যও। তারা নিয়ে এসেছে ‘অহম কালেকশন‘। ডিজাইনেই হোক, বা দামে, অথবা সোনা-রূপো-হিরের বিশুদ্ধ চমকে– ‘অহম’ কালেকশন কিন্তু একদম ইউনিক। এমন ডিজাইন যেমন মুগ্ধ করবে ধুতি-পাঞ্জাবি পরা পুরুষকে, তেমনই শেরওয়ানি পরিহিত বরকেও করে তুলবে নজরকাড়া। হাতের ব্রেসলেট থেকে গলার সরু চেনে একখণ্ড হিরে, পরলে সহজেই সবার চোখে পড়ে যাবেন বিয়ের আসরে।

তাহলে আর দেরি কেন। বিয়ের বাজার সেরেই ফেলুন। কনের মনের মতো গয়নার সম্ভার দেখেই আসুন একবার। সাধ আর সাধ্যের মেলবন্ধনের প্রতিশ্রুতি পরখ করেই দেখুন না!

(বিজ্ঞাপন প্রতিবেদন)

 

Comments are closed.