মানুষের ভিড় নেই, মনের আনন্দে ইনডোর গেমসে মেতেছে পেঙ্গুইনের দল! দেখুন মন ভাল করা ভিডিও

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

    দ্য ওয়াল ব্যুরো: মানুষের ঘরবন্দি থাকার সুযোগে প্রাণ খুলে বাঁচছে বন্যপ্রাণ। স্বাভাবিক ছন্দে অবাধে চলাফেরা করতে পারছে তারা। গোটা পৃথিবী জুড়ে এসব ছবি ভাইরাল এখন। ঠিক সেভাবেই নজরে এল সিঙ্গাপুরের এক বন্যপ্রাণী সংরক্ষণ কেন্দ্রে পেঙ্গুইনদের অবাধ বিচরণের ছবি। শুধু বিচরণ নয়, যেন বার্ষিক ক্রীড়া উৎসবে মেতেছে তারা। লকডাউনের কারণে মানুষের আনাগোনা না থাকায় তাদের ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। আর তারাও মনের আনন্দে নিজেদের বাসভূমিটিকে ঘুরে দেখছে। নিজেদের মধ্যে তুমুল খেলাধুলো করছে।

    সিঙ্গাপুরের বন্যপ্রাণী সংরক্ষণ কেন্দ্র এবং চিড়িয়াখানায় বেশ কিছু আফ্রিকান পেঙ্গুইন আছে। লকডাউনের পর থেকেই এদের নিজেদের মতো চলাফেরার সুযোগ করে দেওয়া হয়। সকলেই অবাক, তারা অত্যন্ত ভাল আচরণ করে বাধ্য বাচ্চাদের মতো চলাফেরা করতে শুরু করে! কেউ কেউ তো রীতিমতো ‘ওয়ার্ক আউট’-এ বেরিয়েছে যেন।

    এই সুযোগেই পেঙ্গুইনদের জন্য চিড়িয়াখানা কর্তৃপক্ষের তরফে আয়োজন করা হয়েছে ইনডোর গেমসেরও। অবস্টাকল গেমসের মতো সাজানো হয়েছে সবকিছু। খেলোয়াড় পেঙ্গুইনরা নিজেরাই। সে এক দেখার মতো দৃশ্য। ছোট্ট ছোট্ট শিশুদের মত খেলায় মত্ত তারা। তবে শৃঙ্খলার কোনও অভাব নেই। চিড়িয়াখানার কর্মীরাও তাদের জন্য এই সব আয়োজন করতে পেরে খুশি।

    বন্যপ্রাণী সংরক্ষণ কেন্দ্রের তরফে পেঙ্গুইনদের এই খেলাধুলোর ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়াতেও প্রকাশ করা হয়। লকডাউনে ঘরবন্দি নেটিজেনদের কাছেও দারুণ মজার রসদ হয়ে ওঠে এটি। চিড়িয়াখানার তরফে জানানো হয়েছে, এই খেলাগুলো যে শুধু পেঙ্গুইনদের মনোরঞ্জন করবে, তা-ই নয়। তাদের পায়ের জোরও বাড়াবে রীতিমতো। তাদের স্বাস্থ্যের জন্য উপকারী হবে এই উদ্যোগ।

    দেখুন সেই ভিডিও।

    Building Leg Strength

    Our African penguins have taken to their walks so well that their keepers think they would love to explore new areas in our parks. To help them go further in their little adventures, their exhibit has been transformed into an obstacle course, helping them build leg strength! #TheGreatIndoorsWRS

    Wildlife Reserves Singapore এতে পোস্ট করেছেন মঙ্গলবার, 28 এপ্রিল, 2020

    যারা পশুপাখি ভালোবাসেন তারা এই দৃশ্যে দারুন খুশি। অনেকে তো বলেই দিয়েছেন এই হাজার হাজার মৃত্যু মিছিলের মাঝে এগুলোই একটু ভালো লাগার খবর, একটু আনন্দের জোগান।

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

You might also like

Comments are closed, but trackbacks and pingbacks are open.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More