শনিবার, মার্চ ২৩

অনীকের ছবি: সৌমিত্র বললেন, গণতান্ত্রিক দেশে এ ভাবে সিনেমা বন্ধ করা যায় না

দ্য ওয়াল ব্যুরো: ‘ভবিষ্যতের ভূত’ বন্ধ হওয়া নিয়ে এ বার গর্জে উঠলেন বর্ষীয়ান অভিনেতা সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়।

পরিচালক অনীক দত্তের নতুন ছবি ‘ভবিষ্যতের ভূত’ রিলিজ করার পরের দিন, শনিবার থেকেই কলকাতার সমস্ত সিনেমা হলে ছবিটির প্রদর্শন বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। পরিচালক খোদ মনে করছেন, এই ভূতে ভয় পেয়েছে প্রশাসন। রবিবার বর্ষীয়ান অভিনেতা সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ও একটি লিখিত বিবৃতি দিয়ে বললেন, শুধু ভয় নয়। রীতিমতো প্রতিশোধ নিতে চাইছে প্রশাসন।

তার পর থেকেই অনীকের পাশে দাঁড়িয়েছেন সিনেমা-মহলের বহু ব্য়ক্তিত্ব। সরকারি পদক্ষেপের ভূমিকায় নিন্দায় মুখর হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়া। টুইট করে পরিচালকের পাশে দাঁড়িয়েছেন সৃজিত মুখোপাধ্যায় থেকে পরমব্রত চট্টোপাধ্যায়।

তারই মধ্যে একটি লিখিত বিবৃতি দিলেন বর্ষীয়ান অভিনেতা সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়। প্রশাসনের তীব্র নিন্দা করে তিনি জানিয়েছেন, এ ভাবে সিনেমা বন্ধ করে দেওয়াটা মারাত্মক গণতন্ত্রবিরোধী কাজ।

এই বিবৃতি দিয়েছেন সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়।

প্রসঙ্গত, কিছু দিন আগে কলকাতা ফিল্ম ফেস্টিভ্যালে, নন্দন, রবীন্দ্রসদন চত্বর জুড়ে মুখ্যমন্ত্রী ছবি ব্যবহার করার নিয়েও প্রশ্ন তুলেছিলেন অনীক দত্ত। ফেস্টিভ্যালের একটা আলোচনা সভায় তিনি বলেছিলেন, ‘সিনেমা এখন আর পরিচালক, প্রযোজকদের বিষয় নয়, নন্দন প্রাঙ্গণে যাঁর ছবি ছড়িয়ে আছে, বাস্তবে তিনিই বোধহয় সিনেমার একমাত্র  ব্যক্তিত্ব।’

এই বিষয়টিও তাঁর বিবৃতিতে উল্লেখ করেছেন সৌমিত্র। প্রশ্ন তুলেছেন, তা হলে কি স্বাধীন মতামত প্রকাশ করার বিরুদ্ধে প্রতিশোধ নিল প্রশাসন? এই মানসিকতাকে ‘ফ্যাসিস্ত’ বলেও উল্লেখ করেছেন সৌমিত্র।

Shares

Comments are closed.