মঙ্গলবার, সেপ্টেম্বর ১৭

গণেশ দর্শনের সময়ে এই অঙ্গ চোখে পড়লে দারিদ্র আসে জীবনে, এমনই বলে শাস্ত্র

অনির্বাণ

সকল দেব-দেবী‌র মধ্যে গণেশকে সুখ-সমৃদ্ধির দেবতা বলা হয়। যে কোনও কাজ শুরুর সময়ে গণেশের দর্শন শুভ বলে মনে করা হয়। কিন্তু অনেকেই হয়তো জানেন না, গণেশের একটি অঙ্গের দর্শনই তাঁর ভক্তের কাছে সমস্যার হতে পারে বলি মনে করেন শাস্ত্রকাররা।

শাস্ত্র মতে, ভগবান গণেশের মধ্যে পুরো ব্রহ্মাণ্ডের বীজ বাস করে। এর মধ্যে ভালো ও খারাপ দুই-ই থাকে। গণপতির কান, হাত, উদর ও নাভিতে ‘শুভ’ অধিষ্ঠান করে। আর পিঠে অবস্থান করে ‘অশুভ’।

তাই গণেশের পিঠ দর্শন করলে তা অশুভ ফল দিতে পারে। শাস্ত্র অনুযায়ী, গণেশের ডান হাতে বর, বাঁ হাতে অন্ন, উদরে সমৃদ্ধি, নাভিতে ব্রহ্মাণ্ড, চোখে লক্ষ্য ও মাথায় ব্রহ্মলোক অধিষ্ঠান করে।

আর গণেশের পিঠে দারিদ্র বাস করে। মনে করা হয়, তাঁর পিঠ কোনও ব্যক্তি দর্শন করলে তাঁর জীবনে দুর্ভাগ্য নেমে আসে। শুধুই ধনক্ষয় নয় বা শুধুই ভাগ্যবান ব্যক্তি ছারখার হয়ে যান না, সঙ্গে সেই ব্যক্তিকে কাজের জায়গায় অপমানিতও হতে হয়।

যদি কেউ ভুল করে গণেশের পিঠ দেখে ফেলেন, তাহলে একটি কাজ তিনি করতে পারেন। তিনি গণেশের কাছে ক্ষমাপ্রার্থনা করতে পারেন। স্বচ্ছ চিত্তে গণেশের ধ্যান করতে পারেন। ভক্তদের বিশ্বাস, এই কুপ্রভাব কাটাতে গণেশের নাম জপ করা উচিত। এমনটাই বলছে সনাতন বিশ্বাস।

আরও পড়ুন

গণেশের দুই পত্নী, কিন্তু তাঁদের কেন বিনায়কের সঙ্গে দেখা যায় না

Comments are closed.