মঙ্গলবার, অক্টোবর ১৫

কীভাবে কমাবেন ট্রাফিক চালান, সোশ্যাল মিডিয়ায় ব্যাখ্যা করলেন পুলিশকর্মী, দেখলেন ৯৭ লক্ষ

দ্য ওয়াল ব্যুরো : রাস্থায় দুর্ঘটনা কমাতে কিছুদিন আগে সংশোধিত হয়েছে মোটর ভেহিকেলস আইন। তাতে আগের চেয়ে ১০ গুণ বেশি হারে জরিমানা আদায় করার কথা বলা হয়েছে। আগে লাইসেন্স ছাড়া গাড়ি চালালে ৫০০ টাকা জরিমানা আদায় করা হত। নতুন আইনে ফাইন দিতে হবে ৫ হাজার টাকা। এই পরিস্থিতিতে সুনীল সান্ধু নামে এক পুলিশ কনস্টেবল একটি ভিডিওয় ব্যাখ্যা করেছেন, কীভাবে ট্রাফিক জরিমানার পরিমাণ কমানো যাবে।

সান্ধু বলেছেন, সংশোধিত মোটর ভেহিকেলস অ্যাক্ট অনুযায়ী যেখানে ২ হাজার টাকা জরিমানা দেওয়ার কথা, বিশেষ কৌশলে মাত্র ১০০ টাকা দিয়ে সেখানে রেহাই পাওয়া যেতে পারে। সেই ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় আপলোড করার পরে রীতিমতো চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছে। ইতিমধ্যে ৯৭ লক্ষ মানুষ দেখে ফেলেছেন সেই ভিডিও।

ওই পুলিশকর্মী ব্যাখ্যা করেছেন, সংশোধিত আইনে ড্রাইভিং লাইসেন্স ছাড়া গাড়ি চালালে জরিমানা ৫ হাজার টাকা, পলিউশন সার্টিফিকেট ছাড়া গাড়ি চালালে জরিমানা ১০ হাজার টাকা, গাড়িতে বিমার নথিপত্র না থাকলে জরিমানা ২ হাজার টাকা। কিন্তু কোনও ড্রাইভার যদি উপযুক্ত নথিপত্র নিতে ভুলে যান, তিনি মাত্র ১০০ টাকা ফাইন দিয়ে রেহাই পেতে পারে

কীভাবে কোনও ড্রাইভার অত কম টাকা দিয়ে রেহাই পাবেন?

সান্ধু বলেছেন, ট্রাফিক আইন ভঙ্গ করার জন্য কাউকে জরিমানা করার পরে টাকা জমা দেওয়ার জন্য ১৫ দিন সময় দেওয়া হয়। সেই সময়ের মধ্যে কেউ যদি সব নথিপত্র নিয়ে কর্তৃপক্ষের সঙ্গে দেখা করে তাহলে মাত্র ১০০ টাকা দিয়ে রেহাই পেতে পারে। তবে হেলমেট ছাড়া বাইক চালানো বা মদ্যপান করে গাড়ি চালালে কোনও ছাড় পাওয়া যাবে না।

গত সপ্তাহে সান্ধুর ভিডিও ফেসবুকে আপলোড করা হয়। মোটর ভেহিকেলস অ্যাক্ট সম্পর্কে সচেতন করার জন্য অনেকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন সান্ধুকে।

 

Comments are closed.