রবিবার, নভেম্বর ১৭

কচুরিপানায় মুখ ঢেকেছে পাঞ্চেত জলাধার, ফেরি বন্ধ হওয়ায় দুর্ভোগ

দ্য ওয়াল ব্যুরো, পুরুলিয়া : ভেসে আসা কচুরিপানায় ভর্তি হয়ে গেছে পাঞ্চেত জলাধার। তাই বন্ধ হয়ে গেছে নৌকা চলাচল। চরম অসুবিধায় নিতুরিয়া ব্লকের রায়বাঁধ ও গুনিয়ারা গ্রাম পঞ্চায়েতের কয়েক হাজার মানুষ।

ফেরি চলাচল বন্ধ হওয়ায় প্রায় ৩০ কিলোমিটার পথ ঘুরে মানুষকে আসতে হচ্ছে স্বাস্থ্যকেন্দ্রে, কলেজে, বাজারে। তাঁদের অভিযোগ, প্রায় ১০ দিন ধরে পাঞ্চেত জলাধার কচুরিপানায় ঢেকে গেছে। কিন্তু তা পরিষ্কারের কোনও উদ্যোগ নেয়নি ডিভিসি কর্তৃপক্ষ বা রঘুনাথপুর মহকুমা প্রশাসন। মানুষের এই ভোগান্তির বিরুদ্ধে সরব হয়েছে এলাকার সব রাজনৈতিক দল। পরিস্থিতি সরেজমিনে দেখার পর অবিলম্বে যাতে কচুরিপানা পরিষ্কার করে ফেরি চলাচল চালু করা হয় তার জন্য ডিভিসি কর্তৃপক্ষকে উদ্যোগী হওয়ার আবেদন জানান প্রাক্তন সাংসদ বাসুদেব আচারিয়া।

ডিভিসি সূত্রে জানা গিয়েছে, ইতিমধ্যেই রঘুনাথপুর মহকুমা প্রশাসনের সঙ্গে কথা বলেছেন তাঁরা। রঘুনাথপুর মহকুমা প্রশাসনের তরফে জানা গেছে, কচুরিপানার সরানোর জন্য অভিজ্ঞ সংস্থাকে ডেকে এনে কয়েকদিনের মধ্যেই কচুরিপানা পরিষ্কার করার কাজ শুরু হবে।

প্রতিদিন নানা কাজে পুরুলিয়ার নিতুরিয়া ব্লকের গুনিয়ারার বাথানবাড়ি ঘাট থেকে পাঞ্চেত জলাধার পেরিয়ে মহেশ নদীর ঘাটে  আসেন প্রায় ৫০টি গ্রামের কয়েক হাজার মানুষ। দীর্ঘদিন ধরেই বাথানবাড়ি থেকে মহেশ নদী পর্যন্ত একটি স্থায়ী সেতু নির্মাণের দাবি জানিয়ে আসছেন তাঁরা। লোকসভা নির্বাচনের আগে সেতুর দাবিতে এলাকায় পোস্টারও পড়েছিল। প্রাক্তন সাংসদও বিষয়টি নিয়ে ডিভিসির সঙ্গে কথা বলেন।

আপাতত অবশ্য মানুষ চাইছেন কচুরিপানা পরিষ্কার করে ফেরি চলাচল শুরু হোক। লাঘব হোক প্রতিদিনের দুর্ভোগ।

Comments are closed.