বুধবার, নভেম্বর ২০
TheWall
TheWall

বন্ধ ঘর থেকে উদ্ধার দগ্ধ দেহ, জখম আরও দুজনকে ভর্তি করা হল হাসপাতালে

দ্য ওয়াল ব্যুরো, উত্তর দিনাজপুর : বাইরে থেকে ঘরের দরজা আটকে দিয়ে এক পরিবারের সবাইকে আগুন দিয়ে পুড়িয়ে মারার চেষ্টার অভিযোগ উঠল চাকুলিয়ার নিজামপুরে। দগ্ধ হয়ে মৃত্যু হয়েছে গৃহকর্তার। তাঁর স্ত্রী ও মেয়ে আশঙ্কাজনক অবস্থায় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

পুলিশ জানিয়েছে, মৃত ব্যক্তির নাম আইনুল হক (৬০)। মঙ্গলবার গভীর রাতে ওই পরিবারের সদস্যদের আর্তচিৎকার শুনে ছুটে আসেন পড়শিরা। দেখতে পান দাউদাউ করে জ্বলছে গোটা বাড়ি। খবর পেয়ে আসে পুলিশ ও দমকল। পরে বাড়ির ভেতর থেকে আইনুলের দগ্ধ দেহ উদ্ধার হয়। তাঁর স্ত্রী ও কন্যাকে প্রথমে কিষানগঞ্জ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। শারীরিক পরিস্থিতির অবনতি হওয়ায় তাদের পাঠানো হয় বিহারের পুর্নিয়াতে।

আইনুলের পরিজনদের অভিযোগ, আগুন দিয়ে পুড়িয়ে মারার চেষ্টা হয়েছে গোটা পরিবারকে। কারণ চিৎকার শুনে ছুটে এসে সবাই দেখতে পান ঘরের দরজায় বাইরে থেকে শিকল তোলা রয়েছে।

চাকুলিয়া থানার পুলিশ অবশ্য এ বিষয়ে এখনও কোনও মন্তব্য করেনি। এক পুলিশকর্তা বলেন, আগুন লাগার কারণ দমকল খতিয়ে দেখছে। ফরেনসিক বিশেষজ্ঞরাও ঘটনাস্থল থেকে নমুনা সংগ্রহ করবে। সবকিছু খতিয়ে দেখার পরেই এ ব্যাপারে নিশ্চিত হওয়া যাবে। পুরো ঘটনাই এখন খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

ঘটনার খবর পেয়ে ছুটে আসেন চাকুলিয়ার বিধায়ক আলি ইমরান রমজ ওরফে ভিক্টর। তাঁর দাবি, ওই পরিবারকে কেউ ষড়যন্ত্র করে মেরে ফেলার চেষ্টা করেছে।

 

Comments are closed.