রবিবার, সেপ্টেম্বর ২২

রোজ প্রাতরাশে এইসব খাচ্ছেন? ভুলেও খালি পেটে এই খাবারগুলো খাবেন না

দ্য ওয়াল ব্যুরো: রোজ সকালটা কি এক কাপ চা দিয়ে শুরু হয়? নাকি পেয়ালা ভর্তি কফিতে লম্বা চুমুক দিয়ে খবরের কাগজ খুলে বসেন? এর পর ধীরে ধীরে দুধ, কলা বা সব্জি দিয়ে ওটস, নাকি ডায়েটকে গুডবাই বলে ঝাল ঝাল আলুর পরোটায় কামড়। জানেন তো এমন কিছু খাবার রয়েছে যেগুলি খালি পেটে খাওয়া অস্বাস্থ্যকর। পেটে ব্যথা তো বটেই, আলসার বা যে কোনও ক্রনিক রোগ ধরে যাওয়াটাও আশ্চর্যের কিছু নয়। অথচ এই খাবারগুলিই থাকে আপনার নিত্যদিনের প্রাতরাশের তালিকায়।

এক ঝলকে দেখে নিন খালি পেটে কোন খাবারগুলি এড়িয়ে যাবেন-

সিট্রাস ফুড

কমলালেবু, আঙুর এই ফলগুলিতে প্রচুর পরিমাণে থাকে ভিটামিন সি ও অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট, যা শরীরে রোগ প্রতিরোধ শক্তি গড়ে তোলে। কিন্তু, খালি পেটে এই ফল ডেকে আনতে পারে বিপদ। অনেকেই ঘুম থেকে উঠে ফলের রস খান। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এই জাতীয় ফলের সাইট্রিক অ্যাসিড হজম শক্তি কমিয়ে দেয়। পাকস্থলীতে যখন কোনও খাবার থাকে না, সেই সময় এই অ্যাসিড প্রবেশ করলে পেট ফুলে যায়, গ্যাস তৈরি হয়। যাদের আলসার রয়েছে তাদের জন্য খালি পেটে লেবু জাতীয় ফল নৈব নৈব চ।

কেক বা পেস্ট্রি

নিঃসন্দেহে পেস্ট্রি প্রাতরাশের জন্য খুবই মুখরোচক। অনেকেই দিন শুরু করেন কেক বা পেস্ট্রি দিয়েই। ক্রিম ছাড়া কেক খেয়ে যদি ভাবেন কোনও ক্ষতি হবে না, তাহলে ভুল ভাবছেন। কারণ, যে কোনও রকম কেক বা পেস্ট্রি খালি পেটে খেলে সেটা হজম হয় না। শরীরে কোলেস্টেরলের মাত্রা বাড়ায়। গ্যাস-অম্বলের কারণ হয়।

সোডা বা কার্বোনেটেড ড্রিঙ্কস

খালি পেটে সোডা খেলে রক্ত পটাশিয়ামের মাত্রা বেড়ে যায়। যদি হার্টের সমস্যা থাকে তাহলে প্যারালিসিস পর্যন্ত হয়ে যেতে পারে। বিশেষজ্ঞেরা বলছেন, যে কোনও রকম কার্বোনেটেড ড্রিঙ্কস খালি পেটে খেলে ক্যানসার হওয়ার ঝুঁকি অনেক বাড়ে।

কাঁচা শাক সব্জি/ স্যালাড

সালাড বা কাঁচা সব্জি খাওয়া শরীরের পক্ষে ভাল। কিন্তু খালি পেটে নয়। এর মধ্যে থাকা অ্যাসিড হজমের গন্ডগোল বাধাতে পারে।

মিষ্টি

খাওয়ার আগে বা পরে যাঁদের সবসময় মিষ্টি মুখ করতে ইচ্ছে করে তাঁরা সাবধান! কারণ মিষ্টি হজমের যে পরিমাণ ইনসুলিন প্রয়োজন খালি পেটে তা পাওয়া যায় না। ফলে বদ হজম হয়ে যেতে পারে।

কফি

খালি পেটে কফি শরীরে হাইড্রলিক অ্যাসিডের মাত্রা বাড়িয়ে দেয়, ফলে হজমের ক্রিয়া হ্রাস পায়। অনেকেরই খালি পেটে কফি খেলে বমির প্রবণতা দেখা যায়। তা ছাড়া কফি রক্তে অ্যাড্রিনালিনের মাত্রা কমিয়ে দেয়। যা আপনাকে অনেক বেশি স্ট্রেসড করে দেয়। কফির মধ্যে ক্যাফেইন খালি পেটে শরীরে প্রবেশ করলে আলসারের সম্ভাবনা বাড়ে।

চা

গরম ধোঁয়া ওঠা এক কাপ চায়ের সঙ্গে আমাদের দিন শুরু হয়। বিশেষজ্ঞেরা বলছেন, ভুলেও খালি পেটে চা খাবেন না। এর অনেকগুলি সাইড এফেক্ট আছে। খালি পেটে ব্ল্যাক টি খেলে পেট ফাঁপে। পেটে একটা অস্বস্তি বোধ হয়। গ্যাসট্রিকের সম্ভাবনা বাড়ে। খিদে নষ্ট হয়ে যায়। চায়ে ট্যানিন থাকার জন্য খালি পেটে খেলে বমি বমি ভাব লাগে। খালি পেটে চা, শরীরের প্রোটিন ও অন্যান্য নিউট্রিয়েন্টস-এর সক্রিয়তা কমিয়ে দেয়।

 

Comments are closed.