রবিবার, অক্টোবর ২০

কীর্তন দেখে বাড়ি ফেরার পথে গুলিতে খুন তৃণমূল কর্মী

  • 15
  •  
  •  
    15
    Shares

দ্য ওয়াল ব্যুরো, উত্তর দিনাজপুর : কীর্তন শুনে বাড়ি ফেরার পথে  গুলিবিদ্ধ হয়ে খুন হলেন এক প্রৌঢ়। পুলিশসূত্রে জানা গিয়েছে মৃত ওই ব্যক্তি সুবোধ বাইন (৬২) ডালখোলার হাসান গ্রামের বাসিন্দা। তাঁর আত্মীয়দের দাবি, সক্রিয়ভাবে তৃণমূল কংগ্রেস করার জন্যই খুন হতে হয়েছে সুবোধবাবুকে। বিজেপির কর্মী সমর্থকরা ঘটনার সঙ্গে জড়িত বলেও তাঁদের অভিযোগ। তবে বিজেপির পক্ষ থেকে এই অভিযোগ অস্বীকার করা হয়েছে। খবর পেয়েই এলাকায় পৌঁছোন রাজ্যের মন্ত্রী গোলাম রব্বানি।

দু’দিন ধরেই নাম সংকীর্তন চলছে হাসান গ্রামে। মঙ্গলবার রাতে সেখানেই কীর্তন শুনতে গিয়েছিলেন তিনি। গভীর রাতে বাড়ি ফেরার সময় দুষ্কৃতীরা তাঁকে লক্ষ্য করে গুলি চালায় বলে অভিযোগ। গুলি সুবোধবাবুর মাথায় লাগে। আর্ত চিৎকার শুনে ছুটে এসে প্রতিবেশীরা তাঁকে ইসলামপুর মহকুমা হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানেই চিকিৎসকরা তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।

খবর পেয়েই হাসপাতালে ছুটে যান রাজ্যের মন্ত্রী গোলাম রব্বানি। খুনের ঘটনায় বিজেপির বিরুদ্ধেই অভিযোগের আঙুল তোলেন তিনি। ডালখোলা থানায় এইআইআর দায়ের করে মৃতের পরিবার। এরপরেই জিজ্ঞাসাবাদের জন্য একজনকে আটক করেছে পুলিশ।

বিজেপি নেতা সুরজিৎ সেনের দাবি তৃণমূলের কোন্দলের জেরেই এই খুন। তিনি বলেন,‘‘গোটা রাজ্যে দেখা যাচ্ছে, তৃণমূল তৃণমূলকে খুন করছে, আর বিজেপির নাম দিচ্ছে। আগে তদন্ত হোক। পরে বিজেপিকে দোষারোপ করবেন।’’

Comments are closed.