শুক্রবার, অক্টোবর ১৮

গভীর রাতে কার ডাকে গিয়ে গুলিবিদ্ধ হলেন পুলিশের গাড়ি চালক?

দ্য ওয়াল ব্যুরো, উত্তর দিনাজপুর:  ২৬ ঘন্টার ব্যবধানে ফের শ্যুট আউট। রায়গঞ্জের পর এ বার ইসলামপুরে। পুলিশ নাকার অল্প দূরেই গুলিবিদ্ধ হলেন পুলিশের গাড়ির চালক। অবস্থা  আশঙ্কাজনক হওয়ায়  ইসলামপুর মহকুমা হাসপাতাল থেকে উত্তরবঙ্গ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়েছে তাঁকে। এ বিষয়ে মুখে কুলুপ এঁটেছে ইসলামপুরের পুলিশ।
সোমবার গভীর রাতে ইসলামপুর শহরের বাইরে পুলিশ চেক পোস্টের পাশেই গুলিতে জখম হন ইসলামপুর থানার অস্থায়ী গাড়িচালক গৌরাঙ্গ কর্মকার। রক্তাক্ত জখম অবস্থায় ওই চালককে প্রথমে  ইসলামপুর মহকুমা হাসপাতালে আনা হয়। কিন্তু অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় চিকিৎসকরা তাঁকে উত্তরবঙ্গ মেডিক্যাল কলেজ  হাসপাতালে পাঠিয়ে দেন। গৌরাঙ্গর সঙ্গী শম্ভু সরকার জানান, একটি ফোন পেয়ে মোটর সাইকেল নিয়ে অলিগঞ্জ পেট্রোল পাম্প লাগোয়া এলাকায় গিয়েছিলেন গৌরাঙ্গ। ফোর লেন এক্সপ্রেস হাইওয়েতে থাকা পুলিশ চেকপোস্টের পাশেই দাঁড়িয়ে কারও সাথে কথা বলার সময় গুলিবিদ্ধ হয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়েন।

খবর পেয়ে ইসলামপুর থানার পুলিশ প্রথমে ঘটনাস্থলে ও পরে হাসপাতালে পৌঁছায়। প্রশ্ন উঠছে, গভীর রাতে ওই এলাকার কে ফোন করে গৌরাঙ্গকে ডেকেছিল ? ঘটনাস্থলের পাশেই পুলিশের চেকপোস্ট থাকলেও দুষ্কৃতীরা কী ভাবে পালিয়ে গেল?  তোলাবাজদের সঙ্গে বখরার ভাগাভাগি নিয়ে বচসায় গুলি চলেনিতো ?

ইসলামপুর থানার পুলিশ জানিয়েছে, গোটা ঘটনা তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। রবিবার রাতেই রায়গঞ্জের রাসবিহারী মার্কেট এলাকায় গুলিতে জখম হন এক বধূ। পরের পর এমন সমাজবিরোধী কার্যকলাপে আতঙ্ক ছড়িয়েছে গোটা রায়গঞ্জ শহরে।

Leave A Reply