রবিবার, মার্চ ২৪

ট্রাফিকের শব্দ বাড়ায় মেদ! জানতেন?

দ্য ওয়াল ব্যুরো: ‘বেশি খেলে বাড়ে মেদ’, এটা তো সবারই জানা, কিন্তু বেশি শুনলেও যে মেদ বাড়ে সেটা জানেন কি?

মেদ নিয়ে চিন্তা করেন না এমন মহিলা-পুরুষ বোধহয় বিরল। সেডেন্টারি লাইফস্টাইলের সবচেয়ে বড় সমস্যা বাড়তি ওজন বা ওবেসিটি। মেদ ঝরাতে কেউ জিমে ছোটেন, কেউ বা টিভি দেখে যোগায় মাতেন, আবার কেউ বিরিয়ানি-কাবাব ছেড়ে দই-শশা শুরু করেন। কিন্তু, জানেন কি শুধু ঝাল-ঝোল-অম্বলই নয়, মেদ বাড়তে পারে অতিরিক্ত শব্দ থেকেও? যানবাহনের কোলাহল হোক বা মাইকের তাণ্ডব, সহনশীল মাত্রার বেশি শব্দের দাপট ডেকে আনতে পারে নিদ্রাহীনতা, ওবেসিটির মতো রোগ। নতুন গবেষণায় এমনটাই জানাচ্ছেন ‘বার্সেলোনা ইনস্টিটিউট ফর গ্লোবাল হেলথ’-এর গবেষকরা।

‘এনভায়োরনমেন্ট ইন্টারন্যাশনাল’ নামক বিজ্ঞান পত্রিকায় সম্প্রতি এই গবেষণার ফল প্রকাশিত হয়েছে। বিজ্ঞানীরা জানিয়েছেন, অতিরিক্ত শব্দ থেকে বৃদ্ধি পায় ওজন। পরীক্ষার জন্য প্রাপ্তবয়স্ক কয়েক জন পুরুষ ও মহিলার উচ্চতা, ওজন, বিএমআই (Body Mass Index) মেপে তাঁদের এমন জায়গায় রাখা হয় যেখানে যানবাহনের কোলাহল খুব বেশি। গবেষক মারিয়া ফোরাস্টার জানিয়েছেন, কয়েক মাস পরে দেখা যায়, অতিরিক্ত ট্রাফিকের শব্দ যাঁরা শুনেছেন তাঁদের ওজন অনেক বেশি বেড়েছে। শব্দমাত্রা ১০ ডেসিবেলের চেয়ে বেশি হলেই বিএমআই বাড়ে প্রায় ১৭ শতাংশ।

মারিয়ার মতে, গবেষণায় দেখা গেছে রেল, বিমান-সহ যে কোনও যানবাহনের শব্দই ওজন বৃদ্ধির জন্য দায়ী। কারণ হিসেবে বলা যেতে পারে, শব্দের দাপটে মানুষের ঘুমে ব্যাঘাত ঘটে।  ঘন ঘন কম ঘুমের কারণে হাই ক্যালোরি খাবারের প্রতি আকর্ষণ বেড়ে যায়৷ যার হাত ধরে বাড়ে ওজন৷ এর আগেও আমেরিকার বিজ্ঞানীরা বলেছিলেন, কম ঘুমোলে চর্বি ও কার্বোহাইড্রেট-সমৃদ্ধ হাই ক্যালোরি খাবার খাওয়ার চাহিদা বাড়ে। অন্যদিকে, কম ঘুমের কারণে শারীরিক–মানসিক চাপ বেড়ে ক্ষরিত হয় স্ট্রেস হরমোন কর্টিজোল৷ ক্যালোরি খরচ কমে যায়৷ ওজন বাড়ার এও অন্যতম কারণ৷ মাত্র ৪ দিন কম ঘুমোলেই ইনসুলিনের কার্যকারিতা প্রায় ৩০ শতাংশ কমে যায়৷ ফলে ডায়াবিটিস ও মেদবাহুল্যের আশঙ্কা বাড়ে৷ শরীরের বিপাক ক্রিয়ার হার কমতে শুরু করে৷ কাজেই বেশি দিন এ রকম চললে ওজন বাড়তে পারে সে কারণেও৷

বিজ্ঞানীদের কথায়, নিয়মিত কম ঘুম ও শব্দের কারণে শারীরিক ও মানসিক ক্লান্তি ধীরে ধীরে ক্রনিক রোগের আকার নেয়৷ ইনসমনিয়া, ডায়াবেটিসের পাশাপাশি হৃদরোগের সম্ভাবনাও বাড়ায়৷

 

Shares

Comments are closed.