রবিবার, সেপ্টেম্বর ২২

তিন বছরের শিশুকে ধর্ষণ, চার দিন পরে মিলল পচা গলা দেহ

দ্য ওয়াল ব্যুরো: তিন বছরের শিশুটি বাড়ির বাইরে খেলতে গিয়ে নিখোঁজ হয়েছিল দিন তিনেক আগে। শনিবার তার ক্ষতবিক্ষত পচা-গলা দেহ মিলল বাড়ি থেকে প্রায় এক কিলোমিটার দূরত্বে রাস্তার ধারে। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

ঘটনাটা মধ্যপ্রদেশের বুরহানপুর এলাকার। পুলিশ জানিয়েছে, গত বুধবার বিকেলে নিখোঁজ হয়েছিল শিশুটি। তার পরিবার জানিয়েছে, রোজকার মতো বাড়ির বাইরে খেলতে বেরিয়েছিল সে। বারান্দায় দাঁড়িয়ে তার জন্য অপেক্ষা করছিলেন শিশুটির ঠাকুমা-দাদু। কিন্তু সন্ধের পরেও মেয়েটি না ফেরায় চিন্তা বাড়ে সকলের। আশপাশে খুঁজে না পেয়ে পুলিশে নিখোঁজ ডায়েরি করেন শিশুটির পরিবারের লোকজন।

বুরহানপুরের পুলিশ সুপার অজয় কুমার জানিয়েছেন, শিশুটির বাবা পেশায় একজন কৃষক। ঘটনার দিন বাড়ির কাছেই তাঁদের জমিতে কাজ করছিলেন তিনি। শিশুটিকে খুঁজতে পুলিশ কুকুরও নামানো হয়েছিল বলে জানিয়েছেন তিনি।

পুলিশ আধিকারিক শাকিল খান বলেছেন, শনিবার সকালে রাস্তার ধারে শিশুটির দেহ পড়ে থাকতে দেখা যায়। গোটা দেহে অসংখ্য ক্ষতের দাগ। শিশুটির বাঁ হাতও কেটে নেওয়া হয়েছিল। দেহ হাসপাতালে নিয়ে গেলে জানা যায় শিশুটি যৌন নির্যাতনের শিকার হয়েছে। ধর্ষণের পর শ্বাসরোধ করে তাকে খুন করা হয়েছে। তার আগে নির্মম ভাবে তার উপর অত্যাচার চালানো হয়েছে।

অপরাধীকে উপযুক্ত শাস্তি দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন রাজ্যের নারী ও শিশু কল্যাণ মন্ত্রী অর্চণা চিতনিস। তাঁর কথায়, “ঘটনাটা মর্মান্তিক। আমি শিশুটির পরিবার এবং উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ রাখছি। শিশুটিকে ফিরে পাওয়া যাবে না সেটা ঠিক, কিন্তু অপরাধীকে যত দ্রুত সম্ভব শাস্তি দেওয়া হবে।”

Leave A Reply