বৃহস্পতিবার, মার্চ ২১

পুলওয়ামা সেনা হামলার বদলা! ২১ দিনে খতম ১৮ জইশ জঙ্গি, জানাল সেনা

দ্য ওয়াল ব্যুরো: পুলওয়ামায় জঙ্গি হামলার পরে পেরোতে চলল একটা মাস। এর মধ্যেই, গত ২১ দিনে ১৮ জন জঙ্গিকে খতম করেছে ভারতীয় সেনা৷ সোমবার সাংবাদিক বৈঠকে এই সাফল্যের কথাই তুলে ধরেন ভারতীয় সেনাবাহিনীর লেফটেন্যান্ট জেনারেল, নর্দার্ন কম্যান্ড, রণবীর সিং। নিহত জঙ্গিদের মধ্যে আট জন পাক জঙ্গি বলেও জানান তিনি৷

সেনাবাহিনীর তরফে জানানো হয়েছে, কাশ্মীরে শান্তি ফিরিয়ে আনার উদ্দেশে কাশ্মীরের মাটি থেকে জইশ জঙ্গির সমস্ত ঘাঁটি সমূলে উপড়ে ফেলতে বদ্ধপরিকর সেনা৷ জইশকে পুরোপুরি নির্মূল না করা অবধি এই অভিযান চলবে৷

সোমবারই, ত্রাল এলাকায় জঙ্গি নিকেশ অভিযানে বড় সাফল্য পায় ভারতীয় সেনা৷ পুলওয়ামা হামলার অন্যতম চক্রী মুদাসির খানকে খতম করে জওয়ানরা৷ সেই খবর সাংবাদিক সম্মেলনে জানিয়ে লেফটেন্যান্ট জেনারেল বলেন, জইশ-ই-মহম্মদের সেকেন্ড-ইন-কম্যান্ড ছিল সে৷

এর আগেও পুলওয়ামা হামলার আর এক মাথা কামরানকে খতম করে ভারতীয় সেনা৷ সেনাবাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষে মারা যায় সে৷ ৪৪ জন জওয়ানের উপরে আত্মঘাতী হামলার মূল চক্রী ছিল এই দুই জঙ্গিই৷ তাদের খতম করে পুলওয়ামা শহিদ হওয়া জওয়ানদের মৃত্যুর বড়সড় বদলা নেওয়া গিয়েছে বলে জানিয়েছে ভারতীয় সেনা৷

লেফটেন্যান্ট জেনারেল আরও জানান, চলতি বছরে পাকিস্তান ৪৭৮ বার সংঘর্ষবিরতি চুক্তি লঙ্ঘন করেছে৷ জঙ্গি হামলা ঘটিয়েছে অজস্র। ৭০-এর বেশি জঙ্গি খতম হয়েছে৷ পুলওয়ামার পরে সেই সংখ্যাটা ১৮৷

রবিবার রাত থেকেই ত্রালে সেনা-জঙ্গি গুলির লড়াই শুরু হয়৷ সোমবার সেনা এনকাউন্টারে খতম হয় তিন জঙ্গি৷ এরা সকলে পাক মদতপুষ্ট জঙ্গি সংগঠন জইশ-ই-মহম্মদের সদস্য বলে জানা গিয়েছে৷ নিহত জঙ্গিদের মধ্যে রয়েছে পুলওয়ামা হামলার মাস্টার মাইন্ড মুদাসির আহমেদ খানও৷

সূত্রের খবর, মুদাসিরের বাড়ি কাশ্মীরের অবন্তিপোড়ায়৷ মৃত্যুর পরে তার পরিবারের তরফে ছেলের দেহ পাওয়ার আবেদন জানানো হয়েছে বলে সেনা সূত্রের খবর৷

Shares

Comments are closed.