মঙ্গলবার, জানুয়ারি ২৮
TheWall
TheWall

আলু দিয়ে মাংসের ঝোল, না মাছের কারি? কোন খাবার হজম হতে কত সময় লাগে জানেন?

Google+ Pinterest LinkedIn Tumblr +

দ্য ওয়াল ব্যুরো: আপনি কি ভোজনরসিক? থালা সাজিয়ে পঞ্চব্যঞ্জন পছন্দ করেন? রাস্তার ধারে রোল-চাউমিন-ফুচকা দেখলেই খেয়ে ফেলেন? তার পরেই অবধারিত অম্বল, পেটে ব্যথা, বুক জ্বালার কবলে পড়েন? সাবধান! এত কিছু যে খাচ্ছেন, জানেন তো কোন খাবার হজম হতে ঠিক কতক্ষণ সময় লাগে?

সেডেন্টারি লাইফস্টাইলে সময় ধরে খাওয়া এবং পরিমাণ মেপে খাওয়া একরকম বাতিলের খাতায় চলে গেছে। রাত জেগে কাজ, সকালে অফিসে দেরি, হুড়মুড়িয়ে বেরোতে গিয়েই নাকেমুখে গুঁজে একসার কাণ্ড। কখনও প্রয়োজনের চেয়ে কম খাবার, আবার কখনও একসঙ্গে অনেক কিছু মুখে পুড়ে দিয়ে যাঁরা ভাবছেন বিশ্ব জয় করে ফেলেছেন, তাঁদের জন্য কিন্তু অপেক্ষা করছে বড় বিপদ।

ভারতীয় আয়ুর্বেদ বলে একসঙ্গে বেশ কিছু খাবার গোগ্রাসে খেয়ে ফেললে উপকারের বদলে ক্ষতির পাল্লাই হয় বেশি। শুধু আয়ুর্বেদ নয়, অ্যালোপ্যাথিও এই ধরনের খাবারগুলিকে একসঙ্গে খেতে নিষেধ করে। তাতে হজমশক্তি যেমন বিঘ্নিত হয়, তেমনি হতে পারে বিষক্রিয়াও। ফুড পয়সনিং সবসময় বাইরের মশলাদার খাবারের জন্যই হয়ে থাকে এমনটা নয়, বরং কিছু কিছু খাবার একসঙ্গে খাবার ভুল নির্বাচনের ফলেও হয়ে থাকে। কারণ সব খাবারেরই সম্পূর্ণ পরিপাক হওয়ার একটা নির্দিষ্ট সময় থাকে। তার আগে বা সঙ্গে সঙ্গেই অন্য খাবার গলাধঃকরণ করে ফেললে বিপাকের সমূহ ক্ষতি তো হয়ই, অম্বল, পেট ব্যথা-সহ নানাবিধ সমস্যা কাবু করে ফেলে।

যেমন, মাংস ও দুধ, এই দুটি খাবার একসঙ্গে খেতে নেই এই কথা মোটামুটি সকলেরই জানা।  তাও বেশ রসিয়ে মাংস খাওয়ার পর আমরা দুধ বা দুধজাত খাবার খেতে পছন্দ করি। মাংসে প্রচুর প্রোটিন থাকে। এ দিকে দুধও সুষম আহার। তাই এই দুই খাবার পর পর খেলে শরীরে তাৎক্ষণিক সময়ের জন্য প্রোটিনের পরিমাণ বেড়ে যায়। কোনও এক পুষ্টি উপাদানের মাত্রাতিরিক্ত উপস্থিতি শরীরে জন্য মোটেও ভাল নয়।

সতর্ক থাকতে দেখে নিন কোন খাবার হজম হতে কতক্ষণ সময় লাগে-

শুরুটা করা যাক জল দিয়েই। তার পর দেখে নিন দৈনন্দিন খাদ্য তালিকার কোন কোন খাবার পরিপাক হতে ঠিক কত সময় নেয়।

জল হজম করতে সাহায্য করে। খাওয়ার আগে একগ্লাস জন হজম শক্তিকে আরও বাড়ায়।

সব্জি ও ফল হজম হতে সময় লাগে ৩০-৪০ মিনিট।

দুধ, দই, মাখন, চিজ, দুগ্ধজাত যে কোনও খাবার হজম হতে সময় লাগে অন্তত দু’ঘণ্টা।

মুরগির মাংস হজম হতে সময় নেয় ৯০-১২০ মিনিট। রেড মিটের থেকে চিকেন অনেক বেশি সহজপাচ্য। তাই ডায়েটিশিয়ানরা সিদ্ধ চিকেন বা চিকেন স্যালাড ডায়েটে রাখার পরামর্শ দেন। তবে, মশলাদার চিকেন খেলে সেটা হজম হতে সময় নেবে অনেক বেশি

মাছ অনেক তাড়াতাড়ি পরিপাক হয়।  সময় নেয় ৪৫-৬০ মিনিট।  মাছের ওমেগা-৩ ফ্যাটি অ্যাসিড শরীরে রোগ প্রতিরোধ শক্তি গড়ে তোলে।

আলু খেতে ভালোবাসেন না, এমন বাঙালি বোধহয় বিরল। তবে আলু হজম হতে বেশ সময় নেয়, প্রায় ৯০-১২০ মিনিট। যদি মুঠো মুঠো চিপস খেয়ে ভাবেন জলদি হজম হবে তাহলে কিন্তু ভুল করছেন।

যে কোনও বাদাম হজম হতে সময় নেয় প্রায় ৩ ঘণ্টা।

রেড মিট বা বিফ হজম হতে সময় লাগে ৩ ঘণ্টা। রেড মিটের সঙ্গে যদি অন্যান্য জাঙ্ক ফুড বা অ্যালকোহল একসঙ্গে পেটে যায়, তাহলে সেটা হজম হতে সারাদিনও লাগতে পারে।

রান্না করা সবজি হজম হতে সময় নেয় ৪০ মিনিট। অবশ্যই কম তেলে রান্না সব্জি। তেল-মশলা চর্চিত রসালো আইটেম খেলে সেটা বদহজম থুড়ি অম্বলকে আদর করে ডেকে আনবে সেটা বলাই বাহুল্য।

Share.

Comments are closed.