শুক্রবার, সেপ্টেম্বর ২০

রাজ্যে সেফ ড্রাইভের প্রচার দেখে খুশি বেলজিয়াম থেকে বাইক চালিয়ে আসা ট্রুই হ্যানলে

দ্য ওয়াল ব্যুরো, জলপাইগুড়ি : ‘সেফ ড্রাইভ’ আর ‘উইমেন এমপাওয়ারমেন্ট’- এই জোড়া স্লোগান নিয়ে যাত্রা শুরু হয়েছিল চলতি বছরের ফেব্রুয়ারি মাসে। মোটরবাইক যাত্রা। সুদূর বেলজিয়াম থেকে রিলে স্টিক নিয়ে এসেছিলেন সে দেশের শিক্ষিকা ট্রুই হ্যানলে। বাংলাদেশে পৌঁছে মায়ানমারের হাতে রিলে স্টিক তুলে দিয়ে জলপাইগুড়িতে এসে দু দিন থেকে গেলেন তিনি। খুশির হাওয়া জলপাইগুড়ির বাইকার্স মহলে।

মহিলাদের বিশ্ব বাইক রিলেতে অংশ নিয়ে সফল ভাবে রিলে স্টিক মায়ানমারের প্রতিনিধির হাতে তুলে দেন ট্রুই। বললেন, ‘‘মহিলারা যেই সমাজে বেশি স্বনির্ভর সেই সমাজ এগিয়ে যায় দ্রুত। তাই পৃথিবীর সমস্ত দেশের উন্নয়নেই আরও বেশি করে এগিয়ে আসুক তাঁরা। এই বার্তাই দিতে চাই। সঙ্গে মোটরবাইক দুর্ঘটনা রুখতে সচেতন করতে চাই আমরা। তাই এই উইমেন রাইডার ওয়ার্ল্ড রিলে।’’

ফেব্রুয়ারি মাসে স্কটল্যান্ড থেকে শুরু হয়েছিল এই বাইক র‍্যালি। আগামী বছরের ফেব্রুয়ারি মাসে এখানেই শেষ হবে র‍্যালি। নেপাল থেকে ভারত হয়ে বাংলাদেশে যাবে রিলে ব্যাটন টি। সেই ব্যাটন নেপালের কাকরভিটা থেকে সংগ্রহ করে বাইকে চেপে শিলিগুড়ি হয়ে আসাম থেকে মেঘালয়। এরপর সেখানকার ডাউকি বর্ডার হয়ে বাংলাদেশের ঢাকায় গিয়ে মায়ানমারের প্রতিনিধিদের হাতে রিলে স্টিক তুলে দেন বেলজিয়ামের বাসিন্দা পেশায় শিক্ষিকা বছর ৫৯ এর ট্রুই হ্যানলে। ফেরার পথে দু দিন জলপাইগুড়িতে কাটিয়ে গেলেন তিনি। যোগ দিলেন শহরের একটি স্কুলের রাখি বন্ধন উৎসবেও।

গত ৩০ বছর ধরে বাইকার ক্লাবের সদস্য ট্রুই। জানালেন, আগেও দু’বার তিনি ভারতে এসেছেন। এ বারে এই রাজ্যের ওপর দিয়ে বাইক চালাতে গিয়ে নজরে এসেছে ‘সেফ ড্রাইভ সেভ লাইভ’ এর প্রচার। খুব ভাল লেগেছে তাঁর।

Comments are closed.