মঙ্গলবার, সেপ্টেম্বর ১৭

মিনাখাঁর মেছো ভেড়িতে অস্ত্র কারখানার খোঁজ, পাকড়াও বিহারের দুই ব্যবসায়ী

দ্য ওয়াল ব্যুরো, উত্তর ২৪ পরগনা: কলকাতা পুলিশের জালে বিহারের দুই অস্ত্র ব্যবসায়ী। উদ্ধার হল প্রচুর আগ্নেয়াস্ত্র।

পুলিশ জানিয়েছে, মিনাখাঁ থানার ৪ নম্বর চৈতল মেছো ভেড়ির গোপন আস্তানায় অস্ত্র তৈরির ডেরা বানিয়েছিল মুঙ্গেরের দুই অস্ত্র ব্যবসায়ী। তাদের নাম শামসের আলম ও মহম্মদ ফিরোজ। প্রথমজনের বয়স আনুমানিক ৫০। দ্বিতীয়জনের ৩০ বছর। তাদের সঙ্গে হাত মিলিয়েছিল এই রাজ্যেরই শফিকুল গাজি মিঞা।

মুঙ্গেরের দুই ব্যবসায়ী ওখানে অস্ত্র তৈরির কারখানা করেছে বলে দিন ছয়েক আগে খবর পায় কলকাতা পুলিশ। এরপরেই বিষয়টি জানানো হয় জেলা পুলিশকে। বুধবার রাতে কলকাতা পুলিশের দশজনের দল ও মিনাখাঁ থানার সাতজন মোট ১৭ জনের পুলিশবাহিনী মাছের ভেরি ঘিরে ফেলে অভিযান শুরু করে। ওই কারখানা থেকেই গ্রেফতার করা হয় শামসের আলম, মহম্মদ ফিরোজ ও শফিকুল গাজি মিঞাকে।

 

অস্ত্র তৈরির মেশিন, নাট বল্টু, লোহার রড, স্ক্রু ড্রাইভার, গ্যাস কাটার উদ্ধার করা হয়। পাশাপাশি ন’খানা ওয়ান শটার উদ্ধার করেছে পুলিশ। এরমধ্যে বেশ কয়েকটি অসম্পূর্ণ অবস্থায় মিলেছে।

কেন বিহার থেকে এখানে এসে অস্ত্র কারখানা খুলেছিল তারা, খতিয়ে দেখছে পুলিশ। এদের সঙ্গে বিভিন্ন রাজ্যে অস্ত্র ব্যবসায়ীর যোগ আছে কি না সেটাও তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। পাশাপাশি সীমান্ত এলাকায় এসে অস্ত্র কারখানা খোলায় আন্তর্জাতিক অস্ত্র ব্যবসায়ী সঙ্গে ওই দুষ্কৃতীদের কোনও যোগ রয়েছে কি না, সে দিকেও নজর রাখছে কলকাতা পুলিশ ।

Comments are closed.