বৃহস্পতিবার, জুলাই ১৮

হুগলিতে আক্রান্ত তৃণমূল নেতা, খবর পেয়ে পৌঁছতেই পুলিশকে লক্ষ্য করে ইট

দ্য ওয়াল ব্যুরো, হুগলি : তৃণমূলের একটি পার্টি অফিস ভাঙচুর ও এক তৃণমূল নেতাকে মারধরের খবর পেয়ে এলাকায় গিয়ে আক্রান্ত হল পুলিশ। জাঙ্গিপাড়ার রাজবলহাট মোড়লপাড়ায় বৃহস্পতিবার রাতে ওই ঘটনা ঘটে।

গ্রামবাসীরা পুলিশকে লক্ষ করে ইট ছোড়ে বলে অভিযোগ। আহত হন কনস্টেবল মহাদেব হালদার। তাঁকে জাঙ্গিপাড়া হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে সেখান থেকে তাঁকে চুঁচুড়া ইমামবাড়া জেলা হাসপাতালে পাঠানো হয়। এখনও পর্যন্ত এই ঘটনায় কেউ গ্রেফতার হয়নি।

অভিযোগ, জাঙ্গিপাড়ার ঘরেরঘাট এলাকায় তৃণমূলের একটি অফিসে ভাঙচুর চালায় বিজেপি। মারধর করা হয় রাজবলহাট ২ পঞ্চায়েতের প্রধান তুষার রক্ষিতকে। খবর পেয়ে জাঙ্গিপাড়া থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে যায়। অভিযুক্ত বিজেপি নেতা রতন ঘোষকে গাড়িতে তুলতে গেলে ঘিরে ফেলে গ্রামবাসীরা। তাঁরা রতনকে ছিনিয়ে নেয় পুলিশের থেকে। শুরু হয়ে যায় পুলিশ জনতা সংঘর্ষ। গ্রামবাসীদের ছোঁড়া ইটের আঘাতে মাথা ফাটে কনস্টেবল মহাদেব হালদারের। তখনকার মতো রণে ভঙ্গ দেয় পুলিশ। আজ সকালে ফের ঘটনাস্থলে যায় পুলিশ।

আক্রান্ত তুষার রক্ষিত বলেন, “আমার উপর হামলার ঘটনা এই প্রথম নয়। এলাকায় প্রভাব খাটানোর জন্য এর আগেও বিজেপির হামলার শিকার হয়েছি আমি।”

অভিযোগ অস্বীকার করে বিজেপির নেতা রতন ঘোষ বলেন, “ওদের দলের মধ্যে অনেক গোষ্ঠী। নিজেদের মধ্যে মারামারি করে বিজেপির নাম দোষ দেওয়া ওদের স্বভাব। এখন আর মানুষ এ সব বিশ্বাস করে না।”

পুলিশ জানিয়েছে গোটা ঘটনার তদন্ত চলছে।

Comments are closed.