মঙ্গলবার, জানুয়ারি ২৮
TheWall
TheWall

আংটি, বালা দেখে এক সপ্তাহ পর সনাক্ত করা হল আগুনে ঝলসানো তরুণীর দেহ

Google+ Pinterest LinkedIn Tumblr +

দ্য ওয়াল ব্যুরো, মালদহ :  আংটি, হাতের বালা ও পায়ের সুতো দেখে এক সপ্তাহ পর আগুনে ঝলসানো তরুণীর দেহ সনাক্ত করলেন তাঁর পরিবারের লোকজন। জানা গেছে, মৃত তরুণীর বয়স ২৪ বছর। বাড়ি শিলিগুড়ির অম্বিকানগরে।

বিবাহবিচ্ছিন্না ওই তরুণীর দুই ছেলে মেয়ে রয়েছে। ২ ডিসেম্বর থেকে নিখোঁজ ছিলেন তিনি। এই ঘটনার সঙ্গে জড়িত  সন্দেহে চারজনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করেছে পুলিশ। পাঁচ ডিসেম্বর কোতোয়ালির টিপাজানি গ্রাম থেকে উদ্ধার হয় তাঁর দেহ। পরিবারের সদস্যরা জানান, শিলিগুড়ি থানায় নিখোঁজ ডায়েরি করেছিলেন তাঁরা।

গত বৃহস্পতিবার সকালে ইংরেজবাজার থানার কোতোয়ালি গ্রাম পঞ্চায়েতের টিপাজানি গ্রামে একটি আম বাগানের মধ্যে থেকে উদ্ধার হয় ওই তরুণীর অর্ধনগ্ন এবং অগ্নিদগ্ধ দেহ। ভোরবেলা চাষের কাজ করতে যাওয়ার সময় বাগানের মধ্যে তরুণীর ঝলসানো দেহ দেখতে পান গ্রামের বাসিন্দারা। এই ঘটনায় তীব্র চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয় গোটা এলাকায়। খবর পেয়ে ছুটে আসেন জেলার পুলিশসুপার অলোক রাজোরিয়া-সহ পদস্থ পুলিশ কর্তারা। ঘটনাস্থল থেকে নমুনা সংগ্রহ করেন তাঁরা। সে সব পাঠানো হয় ফরেন্সিক পরীক্ষার জন্য।

গ্রামবাসীদের অভিযোগ, ধর্ষণ করে ওই যুবতীকে খুন করার পর প্রমাণ লোপাটের জন্য আগুনে পুড়িয়ে দিয়েছে দুষ্কৃতীরা। প্রাথমিক তদন্তে পুলিশেরও অনুমান তেমনটাই। ঘটনার তিন দিন পরেও পুলিশ ওই তরুণীর পরিচয় জানতে না পারায় ক্ষোভ বাড়তে থাকে জেলাজুড়ে। সোশ্যাল মিডিয়ায় তাঁর আধপোড়া দেহ, হাতের আংটির ছবি দিয়ে পোস্ট করে মালদা পুলিশ। অবশেষে ঘটনার এক সপ্তাহ পরে ওই তরুণীর দেহ সনাক্ত করলেন তার পরিবারের সদস্যরা।

 

 

Share.

Comments are closed.