শনিবার, অক্টোবর ১৯

ঘাসফুলের ভরসা প্রশান্ত কিশোর কে, কত টাকা নেন পিকে, জানুন ১০ তথ্য

দ্য ওয়াল ব্যুরো: নবান্নে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে দু’দফায় বৈঠক করেন প্রশান্ত কিশোর। সেখান দু’বারই হাজির ছিলেন যুব তৃণমূল কংগ্রেস সভাপতি অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। শুক্রবারও তৃণমূল ভবনে অভিষেকের সঙ্গেই আসেন প্রশান্ত। বৈঠক শেষে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের গাড়িতে চেপেই তৃণমূল ভবন ছাড়েন প্রশান্ত ও অভিষেক। তৃণমূল কংগ্রেসের কর্মীদের মধ্যেও এখন বড় কৌতূহল পিকে-কে নিয়ে। জেনে নিন পিকে সম্পর্কে ১০ তথ্য–

১। নয়া দিল্লির বাসিন্দা প্রশান্ত কিশোরের জন্ম ১৯৭৭ সালে। বিভিন্ন রাজ্যে বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নির্বাচনী প্রচারের কাজ করে ইতিমধ্যেই পলিটিক্যাল স্ট্র্যাটেজিস্ট হিসেবে খ্যাত।

২। কেরিয়ারের শুরুতে প্রশান্ত কিশোর জন-স্বাস্থ্য ক্ষেত্রে অ্যাক্টিভিস্ট ছিলেন।

৩। প্রশান্ত কিশোর বিয়ে করেন গৌহাটির ডাক্তার জাহ্নবী দাসকে। দুই ছেলে রয়েছে প্রশান্তর।

৪। প্রশান্ত কিশোর রাষ্ট্রসঙ্ঘের সঙ্গে দীর্ঘ আট বছর কাজ করেছেন।

৫। ২০১৪ সালে লোকসভা নির্বাচনে নরেন্দ্র মোদীর প্রচার পরিকল্পনায় অংশ নিয়ে সংবাদ শিরোনামে আসেন প্রশান্ত। ‘চায়ে পে চর্চা’ নাকি তাঁরই মস্তিষ্কপ্রসূত।

৬। এর আগে মোদীর সঙ্গে ২০১২ সালে গুজরাত বিধানসভা নির্বাচনেও কাজ করেছেন।

৭। ইন্ডিয়ান পিপলস অ্যাকশন কমিটি নামে ইলেকশন ম্যানেজমেন্ট কনসাল্টেন্সি খোলেন তিনি যার সাহায্য নেন নরেন্দ্র মোদী।

৮। শুধু ভারতেই নয়, তানজানিয়ায় নির্বাচনী স্ট্র্যাটেজিস্টের কাজ করেছেন পিকে।

৯। পাঞ্জাবে অমরিন্দর সিংয়ের জন্য ‘পাঞ্জাব দা ক্যাপটেন, ক্যাপটেন দা পাঞ্জাব’ স্লোগান তিনিই তৈরি করে দেন।

১০। প্রতিটি কাজের জন্যই আলাদা আলাদা টাকা নেয় প্রশান্ত কিশোরের সংস্থা। সে সম্পর্কে কখনও তিনি মুখ না খুললেও জানা যায় বিহারে নীতিশ কুমারের থেকে অফিসিয়ালি ২০ কোটি টাকা নিয়েছিল পিকের সংস্থা। তৃণমূল কংগ্রেসের ক্ষেত্রে অবশ্য মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছেন স্বেচ্ছায় সাহায্য করতে চান পিকে।

আরও পড়ুন

চাইলে দল থেকে বেরিয়ে যান, পাশে প্রশান্তকে নিয়ে নেতাদের ধমক মমতার

Comments are closed.