শনিবার, অক্টোবর ১৯

তুফানগঞ্জে তৃণমূলের তিন কর্মীকে মার, হামলা সিপিএমের সভাতেও, কাঠগড়ায় বিজেপি

দ্য ওয়াল ব্যুরো, কোচবিহার : ফের রাজনৈতিক সংঘর্ষে উত্তপ্ত হল তুফানগঞ্জ। রসিক বিল পর্যটন কেন্দ্রের সামনে তিন তৃণমূল কর্মীকে বেধড়ক মারধরের অভিযোগ উঠল বিজেপির কর্মী সমর্থকদের বিরুদ্ধে। রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করে তাঁদের তুফানগঞ্জ মহাকুমা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

অভিযোগ, রবিবার রাতে বাড়ি ফেরার সময় তিন তৃণমূল কর্মী তাপস রাভা, মিঠুন গায়েন ও শিলাদিত্য সেনকে ঘিরে ফেলে বিজেপির ৩০-৩৫ জন। তাপস, মিঠুন ও শিলাদিত্য মোটরবাইকে সওয়ার ছিলেন। তাঁদের বাইক আটকে রাস্তায় ফেলে বেধড়ক মারধর করা হয়। ভাঙচুর করা হয় মোটরবাইকগুলিও।

স্থানীয় বাসিন্দারা ওই তিনজনকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যান। আহত শিলাদিত্য নাগুরহাট হাইস্কুলের শিক্ষক বলে জানা গেছে। স্থানীয় তৃণমূল নেতৃত্ব ঘটনার দায় বিজেপির উপর চাপালেও, অভিযোগ অস্বীকার করেছে বিজেপি নেতৃত্ব। তাঁরা বলেন, তৃণমূলের দলীয় কোন্দলের জেরেই আক্রান্ত হয়েছেন ওই তিনজন।

এ দিকে, অসম বাংলা সীমান্তের বক্সিরহাটের জোড়াইমোড়ে সিপিএম কর্মীদের সভা চলাকালীন হামলার অভিযোগ উঠেছে বিজেপির  বিরুদ্ধে। হামলায় জখম হয়েছেন সিপিএমের বেশ কয়েকজন নেতাকর্মী। তাঁদের মধ্যে জেলা কমিটির সদস্যও রয়েছেন। রবিবার রাতের দিকে বৈঠক শেষ করে বাড়িতে ফেরার মুহূর্তেই এই আক্রমণ হয় বলে জানিয়েছেন সিপিআইএমের নেত্রী শিখা আদিত্য। তিনি বলেন, “জেলা কমিটির ডাকে আগামীতে জেলা জুড়ে আন্দোলন কর্মসূচির ডাক দেওয়া হয়েছে। সেই আন্দোলন কর্মসূচি সফল করার জন্যই আমরা দলীয় কর্মীর বাড়িতে বৈঠক ডেকেছিলেন। সেই বৈঠক শেষ করে বাড়িতে ফেরার পথেই বিজেপি আশ্রিত  দুষ্কৃতীরা হামলা চালায়।” এই হামলার দায়ও অস্বীকার করেছে বিজেপি নেতৃত্ব।

Comments are closed.