বৃহস্পতিবার, নভেম্বর ১৪

সাক্ষীর হাতেও হাতকড়া! ছবি ভাইরাল হতেই বেকায়দায় তারকেশ্বর থানার পুলিশ

দ্য ওয়াল ব্যুরো, হুগলি: এবিভিপির এক ছাত্রনেতাকে হাতকড়া পরিয়ে আদালতে তোলার ছবি ভাইরাল হতেই সমালোচনার মুখে তারকেশ্বর থানার পুলিশ। উঠল মানবাধিকার লঙ্ঘনের অভিযোগ।

কোনও মামলায় অভিযুক্ত নন সায়নদীপ সামন্ত। কলেজে সংঘর্ষের একটি মামলায় সাক্ষী দেওয়ার কথা ছিল তাঁর। কিন্তু তিনি না আসায় তাঁর বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি হয়েছিল। আজ সকালে তারকেশ্বর থানায় এলে সেখান থেকে তাঁকে হাতকড়া পরিয়ে ট্রেনে করে চন্দননগর আদালতে নিয়ে আসা হয় বলে অভিযোগ। এই ছবি ভাইরাল হতেই চাঞ্চল্য পড়ে যায় সব মহলে।

চন্দননগর আদালতের আইনজীবী অজয়কুমার দাস জানান, ২০১৪ সালে চাঁপাডাঙা কলেজে ছাত্র সংঘর্ষে সাক্ষী হিসাবে নাম ছিল সায়নদীপের। কিন্তু সমন গ্রহণ করেও কোর্টে হাজিরা দেননি তিনি। জানা গেছে, গত তিন মাস আগে আসা সেই সমন গ্রহণ করেছিলেন সায়নদীপের বাবা অমর সামন্ত। সাক্ষী দিতে হাজির না হওয়ায় গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি হয় ওই ছাত্রের বিরুদ্ধে। তিনি বলেন, “সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশে কোনও মামলার অভিযুক্তকেই আদালতে হাতকড়া পরিয়ে আনা যায় না। সেখানে এই ছাত্রকে হাতকড়া পরিয়ে আদালতে এনে ঘোরতর অন্যায় করেছে পুলিশ।”

আদালতে তোলা হলে অবশ্য জামিন দিয়ে দেওয়া হয় ওই ছাত্রকে।

এ ব্যাপারে প্রশ্ন করা হলে হুগলির এসপি তথাগত বসু বলেন, “ব্যাপারটা আমার জানা নেই। খোঁজ নেব।”

Comments are closed.