সোমবার, অক্টোবর ২২

সিগারেট ছাড়তে পারছেন না? ফুসফুস ভাল রাখতে দেখুন কী কী খাবেন

দ্য ওয়াল ব্যুরো:  অনেকবার প্রতিজ্ঞা করেছেন সিগারেট ছাড়তে, ছাড়তে পারেননি? বারে বারেই ফিরে গিয়েছেন ধূমপানের অভ্যাসে। বাবা রামদেবেও আপনাকে বোঝাতে পারেননি ধূমপানের নেশা, সর্বনাশা! রামদেবের দেখানো পথে সক্কাল সক্কাল প্রাণায়াম করেও কি বিগড়ে যাওয়া ফুসফুসকে শোধরানোর চেষ্টা করেছেন কখনও? যদি না করে থাকেন তাহলে নিত্যদিনের খাবারে কিছু অদলবদল আনুন। ডায়েটে রাখুন এমন খাবার যা প্রতিদিন ফুসফুসে জমা হওয়া দূষিত কণা, ময়লা টেনে, নিঙড়ে বার করে তাজা বাতাস চলাচবে সাহায্য করবে।

প্রতিদিনের ধুলো-ধোঁয়ায় আমাদের ফুসফুসের ভিতর ঢোকে নিকোটিন, কার্বন-মনো-অক্সাইড। দীর্ঘদিন ধরে নিঃশ্বাসের সঙ্গে জমা হতে থাকে নানা টক্সিন পদার্থ। এই টক্সিন মিউকাস তৈরি করে, ফলে একসময় ফুসফুস তার স্বাভাবিক কার্যক্ষমতা হারাতে থাকে। ধীরে ধীরে চুপসে যাওয়া ফুসফুস থেকে জন্ম নেয় নিউমোনিয়া, ক্রনিক অবস্ট্রাকটিভ পালমোনারি ডিসিস (COPD), ব্রঙ্কাইটিস, হাঁপানির মতো রোগ।

অতএব, রোগকে দূরে রাখুন। ফুসফুসকে সতেজ রাখতে কী কী খাবার রাখবেন আপনার ডায়েট চার্টে দেখে নিন এক ঝলক—

আখরোট

এতে রয়েছে ওমেগা-৩-ফ্যাটি অ্যাসিড, আলফা-লিনোলেনিক অ্যাসিড, ভিটামিন ই, ফোলেট, পলিফেনলস। হাঁপানি প্রতিরোধে আখরোট খুবই উপকারি।

আপেল

আপেলে রয়েছে ভিটামিন এবং অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট যা ফুসফুসে টক্সিন জমতে দেয় না।

বেরি

এর মধ্যে রয়েছে ভিটামিন সি যা ফুসফুসের ক্ষতিকর কোষগুলিকে বাইরে বার করে দেয়। ফলে মিউকাস জমতে পারে না।

ব্রোকোলি

ব্রোকোলিতে রয়েছে ভিটামিন সি, ক্যারোটিনয়েড, ফোলেট এবং ফাইটোকেমিক্যালস যা ফুসফুসের ক্ষতিকর পদার্থগুলিকে টেনে বাইরে বার করে। টক্সিন জমা হতে দেয় না। নিঃশ্বাস-প্রশ্বাস স্বাভাবিক রাখে।

আদা

সর্দি-কাশি বা ফুসফুসের যে কোনও প্রদাহজনিত রোগে আদার উপযোগিতা রয়েছে। আদার রস ফুসফুস ভাল রাখে।

হলুদ

হলুদের রয়েছে বহুবিধ গুণ। নিয়মিত কাঁচা হলুদ খেলে ফুসফুস ভাল থাকে। দুধের সঙ্গে হলুদ ও মধু মিশিয়ে খেলে ফুসফুসের যে কোনও রোগ হওয়ার প্রবণতা কমে।

Shares

Leave A Reply