বৃহস্পতিবার, নভেম্বর ১৪

তড়িদাহত বাবাকে বাঁচাতে গিয়ে প্রাণ গেল ছাত্রের

দ্য ওয়াল ব্যুরো, দক্ষিণ ২৪ পরগনা: তড়িদাহত বাবাকে বাঁচাতে গিয়ে বিদ্যুতের ছোবলে প্রাণ গেল এক ছাত্রের। বৃহস্পতিবার সকালে মর্মান্তিক এই ঘটনা ঘটেছে বকুলতলার বাঘবেরিয়া গ্রামে। পুলিশ জানিয়েছে মৃতের নাম সৌমেন পাত্র (১৯)।

কলকাতায় চাকরি করতে যেতে হয়। তাই প্রতিদিনের মতোই আজও ভোরে ঘুম থেকে উঠে বাড়ির সামনে টিউবওয়েলে স্নান করতে গিয়েছিলেন উত্তম পাত্র। মুষলধারে বৃষ্টি পড়ায় হাতে ছিল ছাতা। মুখ ধোওয়ার সময় কোনওভাবে সেই ছাতা, পাশে ছিঁড়ে পড়ে থাকা ইলেকট্রিকের তারে ঠেকে যায়। সঙ্গে সঙ্গে তড়িদাহত হন তিনি। উত্তমবাবুর আর্তচিৎকার শুনে ছুটে আসেন তাঁর ছেলে সৌমেন। বাবাকে বাঁচাতে গিয়ে নিজেই বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে আছড়ে পড়েন কলতলায়।

প্রতিবেশীরা এসে কোনও মতে মেন সুইচ অফ করে বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন করেন তাঁদের। দুজনকেই নিয়ে যাওয়া হয় কাছের নিমপীঠ গ্রামীণ হাসপাতালে। সেখানে সৌমেনকে মৃত বলে ঘোষণা করেন চিকিৎসকরা। উত্তমবাবু এখন ভাল আছেন বলে জানিয়েছেন তাঁরা। ছেলে হারানোর শোকে জ্ঞান হারিয়েছেন সৌমেনের মা। শোকের ছায়া নেমেছে গোটা গ্রামে।

পরিবার সূত্রে জানা গেছে, গতবছর উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষায় পাশ করেছেন সৌমেন। বর্তমানে একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে কম্পিউটার শিখছিলেন। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে আসে বকুলতলা থানার পুলিশ। কীভাবে এমন দুর্ঘটনা ঘটল খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলে জানিয়েছে তারা।

Comments are closed.