বৃহস্পতিবার, অক্টোবর ১৭

গ্রামবাসীদের সঙ্গে খণ্ডযুদ্ধ, জ্বলন্ত সিলিন্ডার ছোড়ার চেষ্টা চোরেদের

দ্য ওয়াল ব্যুরো, পূর্ব মেদিনীপুর : চোরেদের সঙ্গে গ্রামবাসীদের খণ্ডযুদ্ধে গভীর রাতে রণক্ষেত্রের চেহারা নিল সুতাহাটা থানার গরানখালি গ্রাম। চুরি করতে এসে ধরা পড়ে যাওয়ায় গ্যাস সিলিন্ডারে আগুন ধরিয়ে গ্রামবাসীদের দিকে ছুড়তে উদ্যত হয় ওই দুষ্কৃতীরা। পুলিশ এসে পড়ায় কোনওমতে রক্ষা পান গ্রামবাসীরা। খণ্ডযুদ্ধে জখম হয়েছেন গ্রামের তিন বাসিন্দা।

রবিবার গভীর রাতে গরানখালি গ্রামে হানা দেয় বেশ কয়েকজন দুষ্কৃতী। অভিযোগ, গ্রামের কয়েকটি বাড়িতে চুরি করার চেষ্টা চালায়। একটি বাড়িতে কেউ না থাকার সুযোগ নিয়ে ঢুকেও পড়ে তারা। গ্রামবাসীরা টের পেয়ে বাড়ি ঘিরে ফেললে, চোরের দল ছাদে উঠে ধারালো অস্ত্র দেখিয়ে প্রাণে মারার হুমকি দিতে থাকে তাঁদের। গভীর রাতে আরও বাসিন্দারা জড়ো হতে থাকেন সেখানে। তখন ছাদ থেকে তাদের লক্ষ্য করে ইট ছুড়তে শুরু করে দুষ্কৃতীরা। তাতে ঘায়েল হল বেশ কয়েকজন।

রাত আড়াইটা নাগাদ গ্রামে জোর হইচই শুরু হওয়ায় আরও লোকের ভিড় বাড়তে থাকে। বেগতিক বুঝে দুষ্কৃতীরা বাড়ির মধ্যে থাকা গ্যাস সিলিন্ডার নিয়ে এসে তাতে আগুন লাগিয়ে জনতার দিকে ছুড়ে মারতে উদ্যত হয়। এ সময়ই বিশাল পুলিশবাহিনী সেখানে এসে পৌঁছনোয় তা আর করে উঠতে পারেনি তারা। পুলিশ দরজা ভেঙে ওই বাড়িতে ঢুকলে পুলিশকে গিরে ধরে জনতা। ওই দুষ্কৃতীদের তাদের হাতে তুলে দেওয়ার দাবিতে সরব হয়। তাঁদের অভিযোগ, গ্রামে চুরি ছিনতাইয়ের ঘটনা উত্তরোত্তর বাড়ছে। কিন্তু বারবার পুলিশকে জানিয়েও ফল মেলেনি কোনও। রাতভর পুলিশকে ঘিরে চলে জনতার বিক্ষোভ। তাই দুষ্কৃতীদের পাকড়াও করলেও তাদের নিয়ে বের হতে পারেনি পুলিশ। ভোরবেলা আরও বাহিনী এসে কোনওরকমে গ্রামবাসীদের হটিয়ে চোরের দলকে থানায় নিয়ে যায়। গ্রামে উত্তেজনা থাকায় এখনও পুলিশ মোতায়েন রয়েছে।

Comments are closed.