রবিবার, আগস্ট ২৫

বাড়ির সামনে মদের আসরের প্রতিবাদ করায় নবান্নের কাছেই বৃদ্ধকে নিগ্রহ

দ্য ওয়াল ব্যুরো, হাওড়া : প্রকাশ্যে মদ খাওয়ার প্রতিবাদ করায় নবান্নের ঢিল ছোড়া দূরত্বে নিগ্রহ করা হল এক বৃদ্ধকে। শুধু গালিগালাজ করেই বিরত থাকেনি দুষ্কৃতীরা, মদের ভাঙা বোতল দিয়ে ওই বৃদ্ধ ও তাঁর ছেলেকে মারার চেষ্টা হয় বলেও অভিযোগ। শিবপুর থানায় অভিযোগ জানানোর পর একজনকে গ্রেফতার করা হয় বলে জানিয়েছে পুলিশ।

ঘটনার সূত্রপাত সোমবার। রাত সাড়ে দশটা নাগাদ খাওয়ার পর হাঁটতে বেরিয়েছিলেন দক্ষিণ পাড়ার বাসিন্দা অমিত সামন্ত। অভিযোগ, তাঁর বাড়ির সামনেই টোটোতে বসে মদ খাচ্ছিল কিছু যুবক। অমিতবাবু প্রতিবাদ করায় তাঁকে গালিগালাজ শুরু করে ওই যুবকরা। তিনি প্রতিবাদ করায় বচসা শুরু হয়। আওয়াজ পেয়ে নীচে নেমে আসেন অমিতবাবুর ছেলে অরিন্দম সামন্ত। অভিযোগ, তখন তাকে মারতে উদ্যত হয় তারা। ছেলেকে বাঁচাতে নিজের সার্ভিস রিভলবার থেকে শূন্যে এক রাউন্ড গুলি ছোড়েন অমিতবাবু। তারপরেই এলাকা থেকে পালিয়ে যায় ওই দুষ্কৃতীরা।

অমিতবাবু জানান, সঙ্গে সঙ্গে ১০০ ডায়াল করে পুলিশকে খবর দেওয়ার চেষ্টা করেন তাঁরা। কিন্তু সমর্থ হননি। পরে শিবপুর থানায় যোগাযোগ করে অভিযোগ দায়ের করেন। অমিতবাবু প্রাক্তন বক্সার বলে জানা গেছে। তিনি বলেন, “আমার সঙ্গে ওদের বচসা শুরু হতেই আমার ছেলে পুরো ঘটনাটা মোবাইলবন্দি করে। সেই ভিডিও আমরা পুলিশকে দিয়েছি।”

রাজ্য প্রশাসনের সদর দফতরের খুব কাছেই এমন ঘটনায় আতঙ্কিত ওই এলাকার বাসিন্দারা। তাঁদের অভিযোগ, প্রতি রাতেই প্রকাশ্যেই বসে নেশার ঠেক। ভয়েই মুখ বন্ধ করে থাকেন সবাই। অমিতবাবু আর তাঁর ছেলে প্রতিবাদ করতে এগোতেই দু্ষ্কৃতীদের হামলার মুখে পড়েন তাঁরা।

পুলিশ জানিয়েছে, ইতিমধ্যেই এই ঘটনায় একজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বাকিদেরও খোঁজ চলছে।

Comments are closed.