রবিবার, আগস্ট ২৫

বিজেপির আইন অমান্য ঘিরে রণক্ষেত্র মেদিনীপুর, পুলিশের লাঠি , কাঁদানে গ্যাস

দ্য ওয়াল ব্যুরো, পশ্চিম মেদিনীপুর:  বিজেপির আইন অমান্য কর্মসূচি ঘিরে তেতে উঠল মেদিনীপুর শহর। বিজেপি কর্মীদের হঠাতে পুলিশ ব্যাপক লাঠিচার্জ করে বলে অভিযোগ। ফাটানো হয় কাঁদানে গ্যাসের শেল।

জেলায় আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির চরম অবনতির অভিযোগে সোমবার পুলিশ সুপারের কার্যালয় ঘেরাওয়ের ডাক দিয়েছিল বিজেপি। কর্মসূচিতে অংশ নেন বিজেপির রাজ্য সম্পাদক সায়ন্তন বসু ও প্রাক্তন আইপিএস ভারতী ঘোষ। দুপুর বারোটা নাগাদ মেদিনীপুর শহরের এলআইসি মোড়ে প্রথমে সভা করেন তাঁরা। এখান থেকেই মিছিল করে যাওয়ার কথা ছিল পুলিশ সুপারের দফতরের দিকে। বিক্ষোভকারীদের রুখতে এলআইসি মোড়ের কাছেই পরপর ব্যারিকেড করে দেয় পুলিশ।

বিক্ষোভকারীরা প্রথম ব্যারিকেড ভেঙে এগোতেই তাঁদের বাধা দেয় পুলিশ। তখনই পুলিশকে লক্ষ্য করে বিজেপির কর্মী সমর্থকরা ইট ছোড়ে বলে অভিযোগ। দ্বিতীয় ব্যারিকেড ভাঙতে গেলে বিক্ষোভকারীদের উপর পুলিশ লাঠিচার্জ করে বলে অভিযোগ। তাঁদের ছত্রভঙ্গ করতে বেশ কয়েক রাউন্ড কাঁদানে গ্যাসের শেলও ফাটানো হয়। পুলিশের লাঠিতে তাঁদের দলের অন্তত ৩৫ জন কর্মী জখম হয়েছেন বলে বিজেপি নেতৃত্বের অভিযোগ। মেদিনীপুর মেডিক্যাল কলেজে আহতদের চিকিৎসার জন্য নিয়ে যাওয়া হয়। ভারতী ঘোষ জানান, বিনা প্ররোচনায় পুলিশ তাঁদের কর্মী সমর্থকদের শান্তিপূর্ণ আন্দোলনে লাঠি চালিয়েছে। রাজ্য সরকার দমনমূলক নীতি নিয়েছে বলেও অভিযোগ করেছেন তিনি।

এ দিকে পুলিশের পাল্টা অভিযোগ, বিজেপির কর্মী সমর্থকদের ছোড়া ইটের ঘায়ে জখম হয়েছেন তাঁদের প্রায় সাতজন কর্মী। খড়্গপুর হাসপাতালে তাঁদের চিকিৎসা করানো হয়েছে। এই কর্মসূচি ঘিরে গোটা শহরজুড়েই এ দিন সকাল থেকে ছিল টানটান উত্তেজনা।

Comments are closed.