রবিবার, আগস্ট ২৫

জমি বিক্রির কাটমানি না পেয়ে বাড়িতে বোমাবাজির অভিযোগ

দ্য ওয়াল ব্যুরো, পূর্ব বর্ধমান : মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের চরম হুঁশিয়ারি, তবু কুচ পরোয়া নেহি।  এ বার জমি বিক্রির কাটমানি না দেওয়ায় বাড়িতে বোমাবাজির অভিযোগ উঠল প্রাক্তন তৃণমূল কংগ্রেস কাউন্সিলরের বিরুদ্ধে।

বর্ধমানের ১৯ নম্বর ওয়ার্ডের পীরবাহারামের ভাঙাপাড়ার বাসিন্দা মহম্মদ কাসেমের অভিযোগ, গভীর রাতে একদল দুষ্কৃতী তাঁর বাড়িতে বোমা ছোড়ে। দোতলার ঘরের জানালা লক্ষ্য করে বোমা ছোড়া হয়। বাড়ির ভিতর সুতলি সহ বেশ কিছু বোমের টুকরো মেলে। বর্ধমান থানায় খবর দিলে রাতেই পুলিশ যায় মহম্মদ কাসেমের বাড়িতে।

তাঁর অভিযোগ, তাঁদের একটি ১২ কাঠা জমি বিক্রির জন্য এলাকার প্রাক্তন কাউন্সিলর সাহাবুদ্দিন খান তাঁর মায়ের কাছে মোট ২৪ লক্ষ টাকা দাবি করে। টাকা দিতে রাজি না হওয়ায় ওই কাউন্সিলর ও তাঁর সঙ্গী জামাল নামে এক ব্যক্তি গত চার বছর ধরে লাগাতার হুমকি দিয়ে যাচ্ছে তাঁকে। মহম্মদ কাসেমের মা বর্ধমান পুরসভার অবসর প্রাপ্ত কর্মী রিজিয়া খাতুন বলেন, “এর আগেও একটা জায়গা বিক্রি বাবদ সাত লক্ষ টাকা হাতিয়ে নিয়েছে ওই কাউন্সিলর। সেই টাকা এখনও ফেরত দেয়নি। টাকা চাইতে গেলেই আমাকে হুমকি দিচ্ছে। আমার ছেলে ও জামাইকে প্রাণে মেরে ফেলা হবে বলেও অনবরত হুমকি দিচ্ছে।”

যদিও সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করেন প্রাক্তন কাউন্সিলর সাহাবুদ্দিন খান। তাঁর দাবি, এই ঘটনার সঙ্গে তাঁর বা তাঁদের দলের কোনও সম্পর্ক নেই। তিনি বলেন, “এটা একেবারেই ওদের শরিকি বিবাদ। কাটমানি নেওয়ার অভিযোগও মিথ্যে।”

বর্ধমান থানার পুলিশ জানিয়েছে, শুক্রবার রাতে পীরবাহারামের ভাঙাপাড়ার বাসিন্দা মহম্মদ কাসেমের বাড়িতে বোমাবাজির খবর শুনেই সেখানে গিয়েছিলেন তাঁরা। কী কারণে তাঁদের বাড়িতে বোমা মারা হয়েছে তার তদন্ত চলছে।

Comments are closed.